fbpx

স্টেট ব্যাঙ্কে ৯০৮৬ ক্লার্ক

স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়ায় ৯০৮৬ জন জুনিয়র অ্যাসোশিয়েট (কাস্টমার সাপোর্ট অ্যান্ড সেলস) নিয়োগ করা হবে। বিজ্ঞপ্তি নম্বর: CRPD/CR/2019-20/03.

বয়সসীমা: ১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখের হিসেবে বয়স হতে হবে ২০-২৮ বছরের মধ্যে (জন্মতারিখ ২ এপ্রিল ১৯৯১ থেকে ১ এপ্রিল ১৯৯৯)। সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

যোগ্যতা: যে-কোনো শাখায় স্নাতক। অন্তিম বছরের প্রার্থীরাও শর্তসাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন। শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পূর্ণ হতে হবে ৩১ আগস্ট ২০১৯ তারিখের মধ্যে। ইন্টিগ্রেটেড ডুয়াল ডিগ্রি সার্টিফিকেটধারীদের ক্ষেত্রেও ৩১ আগস্ট ২০১৯-এর মধ্যে পাশ হতে হবে।

বেতনক্রম: মূল বেতন ১১৭৬৫-৩১৪৫০ টাকা। শুরুতে বেসিক পে ১৩০৭৫ টাকা।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: অনলাইন পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। পরীক্ষা হবে অবজেক্টিভ টাইপের, দুটি ধাপে। প্রিলিমিনারি ও মেইন। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় প্রশ্ন থাকবে— ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ (৩০টি প্রশ্ন, ৩০ নম্বর), নিউমেরিক্যাল এবিলিটি (৩৫টি প্রশ্ন, ৩৫ নম্বর), রিজনিং এবিলিটি (৩৫টি প্রশ্ন, ৩৫ নম্বর)। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ১ ঘণ্টা। নেগেটিভ মার্কিং থাকবে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে মেইন পরীক্ষা দিতে পারবেন। মেইন পরীক্ষায় থাকবে জেনারেল/ ফিনানশিয়াল অ্যাওয়্যারনেস (৫০টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর), জেনারেল ইংলিশ (৪০টি প্রশ্ন, ৪০ নম্বর), কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউড (৫০টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর), রিজনিং এবিলিটি অ্যান্ড কম্পিউটার অ্যাপ্টিটিউড (৫০টি প্রশ্ন, ৬০ নম্বর)। মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট। নেগেটিভ মার্কিং থাকবে। জেনারেল ইংলিশ বাদে বাকি বিষয়ে ইংরেজি ও হিন্দিতে পরীক্ষা দেওয়া যাবে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সম্ভাব্য সময় জুন ২০১৯ এবং মেইন পরীক্ষা হবে আগামী ১০ আগস্ট।

পরীক্ষাকেন্দ্র: পশ্চিমবঙ্গ (রাজ্য কোড ৪৪): আসানসোল, দুর্গাপুর, হুগলি, কল্যাণী, কলকাতা, শিলিগুড়ি। আন্দামান-নিকোবর (রাজ্য কোড ১১): পোর্টব্লেয়ার। অসম (রাজ্য কোড ১৪):  ডিব্রুগড়, গুয়াহাটি, জোরহাট, শিলচর, তেজপুর। বিহার (রাজ্য কোড ১৫): আরা, ঔরঙ্গাবাদ, ভাগলপুর, দ্বারভাঙ্গা, গয়া, মুজফফরপুর, পাটনা, পুর্ণিয়া। ঝাড়খণ্ড (রাজ্য কোড ২৩): বোকারো, ধানবাদ, হাজারিবাগ, জামশেদপুর, রাঁচি। ওড়িশা (রাজ্য কোড ৩৪): ভুবনেশ্বর, কটক, বহরমপুর (গঞ্জাম), বালেশ্বর, ঢেঙ্কানল, রৌরকেল্লা, সম্বলপুর। অন্যান্য রাজ্যের পরীক্ষাকেন্দ্র সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে ওয়েবসাইট থেকে।

আবেদনের ফি: ৭৫০ টাকা (আবেদনের ফি+ ইন্টিমেশন চার্জ)। তপশিলি জাতি/ উপজাতি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও প্রাক্তন সেনাকর্মীদের আবেদনের ফি দিতে হবে না, শুধুমাত্র ইন্টিমেশন চার্জ বাবদ ১২৫ টাকা দিতে হবে। ডেবিট কার্ড/ ক্রেডিট কার্ড/ ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে।

আবেদনের পদ্ধতি: http://bank.sbi/careers অথবা http://www.sbi.co.in/careers লিঙ্কে গিয়ে অনলাইন আবেদন করা যাবে। বৈধ ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর থাকতে হবে। অনলাইন আবেদন করার আগে ছবি ও স্বাক্ষর স্ক্যান করে রাখতে হবে। সম্প্রতি তোলা পাসপোর্ট মাপের রঙিন ছবি হতে হবে। ডাইমেনশন ২০০×২৩০ পিক্সেল (বাঞ্ছনীয়ত), মাপ হতে হবে ২০-৫০ কেবির মধ্যে। সাদা কাগজে কালো কালির পেন দিয়ে স্বাক্ষর করতে হবে। ডাইমেনশন ১৪০×৬০ পিক্সেল (বাঞ্ছনীয়ত), মাপ হতে হবে ১০-২০ কেবির মধ্যে। স্ক্যানার রেজলিউশন ২০০ ডিপিআই। অনলাইন আবেদন করার সময় ছবি ও স্বাক্ষর নির্দিষ্ট স্থানে আপলোড করতে হবে। অনলাইন আবেদন করা যাবে ৩ মে ২০১৯ পর্যন্ত। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য জানা যাবে উপরোক্ত ওয়েবসাইটে।

সার্কেল অনুযায়ী শূন্যপদের বিন্যাস: বেঙ্গল সার্কেল: পশ্চিমবঙ্গ: রেগুলার ভ্যাকান্সি: ৫৬৫ (অসংরক্ষিত ২২৮, ইডব্লুএস অর্থাৎ আর্থিক দিক থেকে দুর্বলতর শ্রেণি ৫৬, তপশিলি জাতি ১২৯, তপশিলি উপজাতি ২৮, ওবিসি ১২৪)। এইসবের মধ্যে ৫টি এলডি, ৫টি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, ৬টি শ্রবণ প্রতিবন্ধী, ৮১টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ: রেগুলার ভ্যাকান্সি: ২৭ (অসংরক্ষিত ১৬, ইডব্লুএস ২, তপশিলি উপজাতি ২, ওবিসি ৭)। এইসবের মধ্যে ১টি এলডি, ১টি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও ৩টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

সিকিম: রেগুলার ভ্যাকান্সি: ৮ (অসংরক্ষিত ৬, তপশিলি উপজাতি ১, ওবিসি ১)। এইসবের মধ্যে ১টি এলডিদের জন্য সংরক্ষিত।

ভুবনেশ্বর সার্কেল: রেগুলার ভ্যাকান্সি: ওড়িশা: ৩৫০ (অসংরক্ষিত ১৪০, ইডব্লুএস ৩৫, তপশিলি জাতি ৫৬, তপশিলি উপজাতি ৭৭, ওবিসি ৪২)। এইসবের মধ্যে ১৪টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ৫০টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত। ব্যাকলগ ভ্যাকান্সি: ১১টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ৬৪টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

পাটনা সার্কেল: রেগুলার ভ্যাকান্সি: বিহার: ১১৫ (অসংরক্ষিত ৫৪, ইডব্লুএস ১১, তপশিলি জাতি ১৮, তপশিলি উপজাতি ১, ওবিসি ৩১)। এইসবের মধ্যে ৪টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ১৬টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

ঝাড়খণ্ড: রেগুলার ভ্যাকান্সি:  ২৩৫ (অসংরক্ষিত ৯৫, ইডব্লুএস ২৩, তপশিলি জাতি ২৮, তপশিলি উপজাতি ৬১, ওবিসি ২৮)। এইসবের মধ্যে ১০টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ৩৩টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

নর্থ ইস্টার্ন সার্কেল: রেগুলার ভ্যাকান্সি: অসম: ৩০০ (অসংরক্ষিত ১৩২, ইডব্লুএস ৩০, তপশিলি জাতি ২১, তপশিলি উপজাতি ৩৬, ওবিসি ৮১)। এইসবের মধ্যে ১২টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ৪৩টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত।

ত্রিপুরা: রেগুলার ভ্যাকান্সি: ১০ (অসংরক্ষিত ৫, ইডব্লুএস ১, তপশিলি জাতি ১, তপশিলি উপজাতি ৩)। এইসবের মধ্যে ১টি শারীরিক প্রতিবন্ধী ও ১টি প্রাক্তন সেনাকর্মীদের জন্য সংরক্ষিত। ব্যাকলগ ভ্যাকান্সি: ১৮ (তপশিলি জাতি ৪, তপশিলি উপজাতি ১৪)।

অন্যান্য সার্কেলের শূন্যপদ সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে ওয়েবসাইট থেকে।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *