fbpx

জীবনবিমার পূর্ব ও পূর্ব-মধ্যাঞ্চলে ১৬২৩ অ্যাপ্রেন্টিস ডেভেলপমেন্ট অফিসার

লাইফ ইনশিওরেন্স কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়ার ইস্টার্ন জোনাল অফিস ও ইস্ট সেন্ট্রাল জোনাল অফিসে ১৬২৩ জন অ্যাপ্রেন্টিস ডেভেলপমেন্ট অফিসার নিয়োগ করা হবে, সারা ভারতের বিভিন্ন জোনাল অফিসে নিয়োগ হবে মোট ৮৫৮১ জন। অ্যাপ্রেন্টিসশিপ ট্রেনিংয়ে সফল হলে নিয়োগ।

১) ইস্টার্ন জোনাল অফিস, কলকাতার শূন্যপদের বিন্যাস: মোট শূন্যপদ ৯২২। ক্রমিক সংখ্যা ১: আসানসোল: ৩৮ (অসংরক্ষিত ১৯, তপশিলি জাতি সি ৯, ওবিসি সি ৭, ইডব্লুএস অর্থাৎ আর্থিক দিক থেকে দুর্বলতর শ্রেণি ৩)। ক্রমিক সংখ্যা ২: বনগাইগাঁও: ২২ (অসংরক্ষিত ১০, তপশিলি জাতি সি ১, তপশিলি উপজাতি সি ৫, ওবিসি সি ৫, ইডব্লুএস ১)। ক্রমিক সংখ্যা ৩: বর্ধমান: ৪২ (অসংরক্ষিত ১৯, তপশিলি জাতি সি ৮, তপশিলি উপজাতি সি ৪, তপসিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ৬, ইডব্লুএস ৪)। ক্রমিক সংখ্যা ৪: গুয়াহাটি: ৭৯ (অসংরক্ষিত ৩৩, তপশিলি জাতি সি ৩, তপশিলি উপজাতি সি ১৮, তপশিলি উপজাতি বি ১, এবিসি সি ১৭, ইডব্লুএস ৭)। ক্রমিক সংখ্যা ৫: হাওড়া: ৮৮ (অসংরক্ষিত ৩৫, তপশিলি জাতি সি ১৯, তপশিলি জাতি বি ১, তপশিলি উপজাতি সি ৮, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ১৬, ইডব্লুএস ৮)। ক্রমিক সংখ্যা ৬: জোরহাট: ৫৩ (অসংরক্ষিত ২৩, তপশিলি জাতি সি ৩, তপশিলি উপজাতি সি ৭, ওবিসি সি ১৫, ইডব্লুএস ৫)। ক্রমিক সংখ্যা ৭: জলপাইগুড়ি: ৮৯ (অসংরক্ষিত ৩৬, তপশিলি জাতি সি ২৫, তপশিলি জাতি বি ২, তপশিলি উপজাতি সি ৫, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ১১, ওবিসি বি ১, ইডব্লুএস ৮)। ক্রমিক সংখ্যা ৮: কেএমডিও ওয়ান: ১১২ (অসংরক্ষিত ৪৪, তপশিলি জাতি সি ২৬, তপশিলি জাতি বি ২, তপশিলি উপজাতি সি ৫, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ২২, ওবিসি বি ২, ইডব্লুএস ১০)। ক্রমিক সংখ্যা ৯: কেএমডিও টু: ৯১ (অসংরক্ষিত ৩৬, তপশিলি জাতি সি ১৯, তপশিলি জাতি বি ১, তপশিলি উপজাতি সি ৯, ওবিসি সি ১৭, ইডব্লুএস ৯)। ক্রমিক সংখ্যা ১০: কেএসডিও: ১৬৭ (অসংরক্ষিত ৭৫, তপশিলি জাতি সি ২৯, তপশিলি জাতি বি ২, তপশিলি উপজাতি সি ৫, তপশিলি উপজাতি বি ৪, ওবিসি সি ৩৫, ওবিসি বি ২, ইডব্লুএস ১৫)। ক্রমিক সংখ্যা ১১: খড়গপুর: ৭২ (অসংরক্ষিত ৩৩, তপশিলি জাতি সি ১৮, তপশিলি উপজাতি সি ৪, ওবিসি সি ১০, ইডব্লুএস ৭)। ক্রমিক সংখ্যা ১২: শিলচর: ৬৯ (অসংরক্ষিত ২৮, তপশিলি জাতি সি ৬, তপশিলি উপজাতি সি ২১, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ৭, ইডব্লুএস ৬)।

 

২) ইস্ট সেন্ট্রাল জোনাল অফিস, পাটনার শূন্যপদের বিন্যাস: মোট শূন্যপদ ৭০১। ক্রমিক সংখ্যা ১: বেগুসরাই: ৩৪ (অসংরক্ষিত ১৯, তপশিলি জাতি সি ৪, ওবিসি সি ৮, ইডব্লুএস ৩)। ক্রমিক সংখ্যা ২: বেরহ্যামপুর: ৮৮ (অসংরক্ষিত ৩৬, তপশিলি জাতি সি ১৬, তপশিলি উপজাতি সি ২৩, ওবিসি সি ৫, ইডব্লুএস ৮)। ক্রমিক সংখ্যা ৩: ভাগলপুর: ৫৩ (অসংরক্ষিত ২২, তপশিলি জাতি সি ৭, তপশিলি উপজাতি সি ৫, ওবিসি সি ১১, ওবিসি বি ৫, ইডব্লুএস ৩)। ক্রমিক সংখ্যা ৪: ভুবনেশ্বর: ৪৬ (অসংরক্ষিত ১৮, তপশিলি জাতি সি ৮, তপশিলি জাতি বি ২, তপশিলি উপজাতি সি ১১, ওবিসি সি ৩, ইডব্লুএস ৪)। ক্রমিক সংখ্যা ৫: কটক: ৭১ (অসংরক্ষিত ২৮, তপশিলি জাতি সি ৮, তপশিলি উপজাতি সি ১৮, তপশিলি উপজাতি বি ৩, ওবিসি সি ৮, ইডব্লুএস ৬)। ক্রমিক সংখ্যা ৬: হাজারিবাগ: ৮৫ (অসংরক্ষিত ৩৪, তপশিলি জাতি সি ৮, তপশিলি উপজাতি সি ২৭, তপশিলি উপজাতি বি ২, ওবিসি সি ৬, ইডব্লুএস ৮)। ক্রমিক সংখ্যা ৭: জামশেদপুর: ৯৬ (অসংরক্ষিত ৩৯, তপশিলি জাতি সি ৫, তপশিলি উপজাতি সি ৩৩, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ৯, ইডব্লুএস ৯)। ক্রমিক সংখ্যা ৮: মজফফরপুর: ৪৫ (অসংরক্ষিত ২৫, তপশিলি জাতি সি ৭, ওবিসি সি ৯, ইডব্লুএস ৪)। ক্রমিক সংখ্যা ৯: পাটনা ওয়ান: ৬১ (অসংরক্ষিত ২৮, তপশিলি জাতি সি ১৪, ওবিসি সি ১৩, ইডব্লুএস ৬)। ক্রমিক সংখ্যা ১০: পাটনা টু: ৬১ (অসংরক্ষিত ২৯, তপশিলি জাতি সি ৫, ওবিসি সি ২১, ইডব্লুএস ৬)। ক্রমিক সংখ্যা ১১: সম্বলপুর: ৬১ (অসংরক্ষিত ২৪, তপশিলি জাতি সি ১০, তপশিলি জাতি বি ১, তপশিলি উপজাতি সি ১৪, তপশিলি উপজাতি বি ১, ওবিসি সি ৫, ওবিসি বি ১, ইডব্লুএস ৫)।

স্টাইপেন্ড, বেতন: প্রথমে অ্যাপ্রেন্টিস ডেভেলপমেন্ট অফিসার হিসাবে (এমপ্লয়ি অ্যাপ্রেন্টিসরা বাদে) স্টাইপেন্ড দেওয়া হবে প্রতি মাসে ৩৪৫০৩ টাকা + ডিএ, শুরুতে এখনকার হিসাবে ৩৪৫০৩ টাকা। সেই ট্রেনিংয়ে সফল হলে প্রবেশনারি ডেভেলপমেন্ট অফিসার হিসাবে মূল বেতন ২১৮৬৫-৫৫০৭৫ টাকা ও অন্যান্য ভাতা, শুরুতে সব মিলিয়ে প্রায় ৩৭৩৪৫ টাকা। প্রবেশনারি পিরিয়ড ১ বছর, প্রয়োজনে তা আরও ১ বছর বাড়তে পারে। প্রবেশনে সফল হলে পাকা চাকরি।

বয়সসীমা: ১ মে ২০১৯ তারিখের হিসেবে বয়স হতে হবে ২১-৩০ বছরের মধ্যে (জন্মতারিখ ২ মে ১৯৮৯ থেকে ১ মে ১৯৯৮)। সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

যোগ্যতা: যে-কোনো শাখায় ব্যাচেলর ডিগ্রি। শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পূর্ণ হয়ে থাকতে হবে ১ মে ২০১৯ তারিখের মধ্যে।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: অনলাইন পরীক্ষা, ইন্টারভিউ ও মেডিকেল পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। অনলাইন পরীক্ষা হবে দুটি পর্যায়ে: প্রিলিমিনারি ও মেইন পরীক্ষা। ওপেন মার্কেট ক্যাটেগরির প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় থাকবে রিজনিং (৩৫টি প্রশ্ন, ৩৫ নম্বর), নিউমেরিক্যাল এবিলিটি (৩৫টি প্রশ্ন, ৩৫ নম্বর), ইংলিশ (৩০টি প্রশ্ন, ৩০ নম্বর)। মোট ৭০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ১ ঘণ্টা।

মেইন পরীক্ষায় থাকবে রিজনিং এবিলিটি অ্যান্ড নিউমেরিক্যাল এবিলিটি (৫০টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর), জেনারেল নলেজ, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এবং ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ (৫০টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর), ইনশিওরেন্স অ্যান্ড ফিনান্সিয়াল মার্কেটিং অ্যাওয়্যারনেস (৫০টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর)। মোট ১৫০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ২ ঘণ্টা।

এজেন্টস ও এমপ্লয়ি ক্যাটেগরির ক্ষেত্রে একটি ধাপে পরীক্ষা হবে। এজেন্ট ক্যাটেগরির পরীক্ষায় থাকবে রিজনিং এবিলিটি অ্যান্ড নিউমেরিক্যাল এবিলিটি (২৫টি প্রশ্ন, ১০ নম্বর), জেনারেল নলেজ, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স অ্যান্ড ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ গ্রামার অ্যান্ড ভোকাবুলারি (২৫টি প্রশ্ন, ১৫ নম্বর), এলিমেন্টস অব ইনশিওরেন্স অ্যান্ড মার্কেটিং অব ইনশিওরেন্স (৫০টি প্রশ্ন, ১২৫ নম্বর), মোট ১৫০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ২ ঘণ্টা।

এমপ্লয়ি ক্যাটেগরিতে থাকবে রিজনিং এবিলিটি অ্যান্ড নিউমেরিক্যাল এবিলিটি (২৫টি প্রশ্ন, ২৫ নম্বর), জেনারেল নলেজ, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স ও ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ গ্র্যামার ও ভোকাবুলারি (২৫টি প্রশ্ন, ২৫ নম্বর), প্র্যাক্টিস অ্যান্ড প্রিন্সিপলস অব ইনশিওরেন্স মার্কেটিং (৫০টি প্রশ্ন, ১০০ নম্বর)। মোট ১৫০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ২ ঘণ্টা।

আবেদনের ফি: ৬০০ টাকা (আবেদনের ফি+ইন্টিমেশন চার্জ)। তপশিলি জাতি/ উপজাতি প্রার্থীদের আবেদনের ফি দিতে হবে না, কেবল ইন্টিমেশন চার্জ বাবদ ৫০ টাকা দিতে হবে। ডেবিট কার্ড (রুপে/ ভিসা/ মাস্টার কার্ড/ ম্যাস্ট্রো), ক্রেডিট কার্ড, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, আইএমপিএস, ক্যাশ কার্ড/ মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে। ব্যাঙ্কের ট্র্যানজাকশন চার্জও দিতে হবে। ট্র্যানজ্যাকশন সম্পূর্ণ হলে একটি ই-রিসিট পাওয়া যাবে, ই-রিসিটের প্রিন্ট আউট নিয়ে রাখতে হবে।

আবেদনের পদ্ধতি: http://www.licindia.in/Bottom-Links/careers লিঙ্কে গিয়ে অনলাইন আবেদন করতে হবে। বৈধ ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর থাকতে হবে। অনলাইন আবেদন করার আগে ছবি, স্বাক্ষর, বা হাতের বুড়ো আঙুলের ছাপ ও হাতে লেখা ডিক্ল্যারেশন স্ক্যান করে রাখতে হবে। অনলাইন আবেদনের সময় ওইসব নির্দিষ্ট স্থানে আপলোড করতে হবে। একজন যে-কোনো একটি ডিভিশনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য উপরোক্ত ওয়েবসাইটে জানা যাবে।

গুরুত্বপূর্ণ তারিখ: অনলাইন আবেদন করা যাবে ২০ মে থেকে ৯ জুন ২০১৯ পর্যন্ত। অনলাইন পরীক্ষার জন্য কললেটার ডাউনলোড করা যাবে ২৯ জুন ২০১৯ থেকে। অনলাইন প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হবে ৬ ও ১৩ জুলাই ২০১৯। অনলাইন মেইন পরীক্ষা হবে ১০ আগস্ট ২০১৯।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *