fbpx

স্কুল সার্ভিস থেকে প্রাইমারি নিয়োগ, দ্রুত মেটানোর লক্ষ্যমাত্রা শিক্ষা দপ্তরের

নির্বাচনী বিধি শেষ হতে স্কুলে বিভিন্ন স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে উঠেপড়ে বসেছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর। আগামী এক মাসের মধ্যে স্কুল সার্ভিস (SSC) থেকে শুরু করে প্রাইমারি স্কুল শিক্ষা একাধিক ক্ষেত্রে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত হতে চলেছে বলে স্কুল শিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর।

মামলার কারণে দীর্ঘদিন স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে থাকায় চাপ বাড়তে থাকে স্কুল শিক্ষা দপ্তরের উপর।  নির্বাচনী বিধি লাগু হওয়ার আগেই সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত ও স্পন্সর্ড স্কুলে নবম-দশম এবং একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি স্তরে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার তৃতীয় দফার ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া মিটিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিছু অংশে নিয়োগ সম্পূর্ণ হয়নি। অন্যদিকে, নিয়োগ প্রক্রিয়ার অসচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। পরীক্ষার্থীদের একটা অংশকে আন্দোলন, অনশন করতে দেখা গেছে।

অন্যদিকে স্কুলে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টিও আটকে রয়েছে। কিছু ক্ষেত্রে নিয়োগপত্র দেওয়া শুরু হলেও মামলার কারণে সেটিও আটকে যায়।  আগামী  ১০ জুন আদালত চালু হলে তারপরেই সমস্ত মামলাগুলি নিয়ে যত দ্রুত মেটানো যায় সেরকমই লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।

ইতিমধ্যেই  রাজ্যের সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত বা সরকারি স্পন্সর্ড জুনিয়র হাইস্কুল, সেকেন্ডারি বা হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলগুলিতে আপার প্রাইমারি স্তরে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ৩য় পর্যায়ের ভেরিফিকেশনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে (http://jibikadishari.co.in/?p=11182)।  আগামী ৪ জুন, ২০১৯ তারিখ থেকে এই ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন হবে। এই প্রক্রিয়াটিকেও আগামী জুন মাসের মধ্যেই শেষ করে দেওয়া হবে বলে স্কুল সার্ভিস কমিশন সূত্রের খবর।

এরপরে আসছে, প্রাইমারি স্কুল স্তরে শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টি।  সেটিও দীর্ঘদিন যাবৎ নানা কারণে আটকে রয়েছে। প্রাইমারি টেট পরীক্ষার জন্যেও কিছুদিনের মধ্যে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্কুল শিক্ষা দপ্তরের সভায় আলোচনা হয়।

সব মিলিয়ে চলতি মাস থেকে শুরু করে আগামী মাসের মধ্যে একের পর এক স্কুল শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার সুরাহা হোক, এমনটাই আশা নিয়ে রয়েছে পরীক্ষার্থীমহল।

 

 

SSC, SSC TET, Primary Tet, SSC Results

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *