fbpx

জেনারেল ইনশিওরেন্সে ২৫ অফিসার নিয়োগ

জেনারেল ইনশিওরেন্স কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়ায় ২৫ জন স্কেল ওয়ান অফিসার নিয়োগ করা হবে।

শূন্যপদ: ফিনান্স/ অ্যাকাউন্টস: ৯, ইনফরমেশন টেকনোলজি: ২, লিগ্যাল: ৬, অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং: ১, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং: ১, অ্যারোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং: ২, মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং: ১, কোম্পানি সেক্রেটারি: ২, হিন্দি: ১।

যোগ্যতা (সবক্ষেত্রেই ন্যূনতম ৬০ শতাংশ (তপশিলি জাতি/ উপজাতিদের ৫৫ শতাংশ) নম্বর সহ) ফিনান্স/ অ্যাকাউন্টস: বিকম। ইনফরমেশন টেকনোলজি (সফটওয়্যার): আইটি/ কম্পিউটার সায়েন্সে বিই/ বিটেক অথবা এমসিএ। লিগ্যাল: এলএলবি/ বিএল ডিগ্রি। অটোমোবাইল/ সিভিল/ অ্যারোনটিক্যাল/ মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং: সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনে বিই/ বিটেক। কোম্পানি সেক্রেটারি: আইসিএসআই থেকে এসিএস/ এফসিএস এবং গ্র্যাজুয়েশন। হিন্দি: হিন্দিতে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট সঙ্গে স্নাতক স্তরে ইংরেজি একটি বিষয় হিসেবে থাকতে হবে অথবা ইংরেজিতে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট সঙ্গে স্নাতক স্তরে হিন্দি একটি বিষয় হিসেবে থাকতে হবে।

বয়সসীমা: ২১ আগস্ট ২০১৯ তারিখের হিসেবে বয়স হতে হবে ২১-৩০ বছরের মধ্যে (জন্মতারিখ ২২ আগস্ট ১৯৮৯ থেকে ২১ আগস্ট ১৯৯৮)। সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: অনলাইন পরীক্ষা, গ্রুপ ডিসকাশন ও ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। অনলাইন পরীক্ষায় থাকবে (হিন্দি অফিসার বাদে অন্যান্য পদের ক্ষেত্রে) পার্ট এ-তে সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিন অনুযায়ী টেকনিক্যাল ও প্রফেশনাল জ্ঞানের পরীক্ষা (৪০টি প্রশ্ন, ৪০ নম্বর)। পার্ট বি-তে রিজনিং (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর), ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর), জেনারেল অ্যাওয়্যারনেস (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর), নিউমেরিক্যাল এবিলিটি অ্যান্ড কম্পিউটার লিটারেসি (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর)। পার্ট এ ও বি-তে অবজেক্টিভ টাইপের প্রশ্ন থাকবে। পার্ট সি-তে ডেসক্রিপটিভ টাইপের প্রশ্ন থাকবে ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ (এসে, প্রেসি, কম্প্রিহেনশন) ৩টি প্রশ্ন, ৩০ নম্বর।

হিন্দি অফিসারের পার্ট এ-তে সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনে টেকনিক্যাল ও প্রফেশনাল জ্ঞানের পরীক্ষা— হিন্দি ও ইংরেজি গ্র্যামার/ ভোকাবুলারি+ নলেজ অব আর্ট (৪০টি প্রশ্ন, ৪০ নম্বর)। পার্ট বি-তে রিজনিং (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর), হিন্দি থেকে ইংরেজি ও ইংরেজি থেকে হিন্দিতে অনুবাদ (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর), জেনারেল অ্যাওয়্যারনেস (২০টি প্রশ্ন, ২০ নম্বর)। পার্ট এ ও বি-তে অবজেক্টিভ টাইপের প্রশ্ন। পার্ট সি-তে ডেসক্রিপটিভ টাইপের হিন্দি ভাষার এসে, প্রেসি, কম্প্রিহেনশন ও হিন্দি এবং ইংরেজি গ্র্যামার+ হিন্দি থেকে ইংরেজি ও ইংরেজি থেকে হিন্দিতে অনুবাদ+ হিন্দি টাইপিং ইউনিকোড ফন্টে (৫টি প্রশ্ন, ৫০ নম্বর)। লেখা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে গ্রুপ ডিসকাশন ও ইন্টারভিউ।

পশ্চিমবঙ্গে অনলাইন পরীক্ষাকেন্দ্র হল: কলকাতা, আসানসোল, শিলিগুড়ি। অন্যান্য রাজ্যের পরীক্ষাকেন্দ্র সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে ওয়েবসাইট থেকে।

আবেদনের ফি: ৫০০ টাকা সঙ্গে জিএসটি। ডেবিট কার্ড (রুপে/ ভিসা/ মাস্টার কার্ড/ ম্যাস্ট্রো), ক্রেডিট কার্ড, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, আইএমপিএস, ক্যাশ কার্ড/ মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে। ট্র্যানজ্যাকশন সম্পূর্ণ হলে একটি ই-রিসিট পাওয়া যাবে, ই-রিসিটের প্রিন্ট-আউট নিয়ে রাখতে হবে। তপশিলি জাতি/ উপজাতি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ফি দিতে হবে না।

আবেদনের পদ্ধতি: www.gicofindia.in ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইন আবেদন করতে হবে। বৈধ ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর থাকতে হবে। অনলাইন আবেদন করা যাবে ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত। অনলাইন পরীক্ষা হবে আগামী ৫ অক্টোবর। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য জানা যাবে উপরোক্ত ওয়েবসাইটে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *