fbpx

দিল্লির সরকারি স্কুলগুলিতে ৯২৩২ প্রাইমারি, পিজিটি, টিজিটি

দিল্লির বিভিন্ন সরকারি স্কুলে ৯২৩২ শিক্ষক/শিক্ষিকা নিয়োগ করা হবে। প্রার্থী বাছাই করবে দিল্লি সাবর্ডিনেট সার্ভিসেস সিলেকশন বোর্ড। বিজ্ঞপ্তি নম্বর: ০৪/১৭। নিচের যোগ্যতার যে-কোনো ভারতীয়রা আবেদন করতে পারবেন। তবে ওবিসিদের সংরক্ষিত পদগুলিতে সুযোগ পাবেন শুধু দিল্লির ওবিসিরা।

বেতন: মূল বেতন অ্যাসিস্ট্যান্ট টিচারদের ৯,৩০০-৩৪,৮০০ টাকা, সঙ্গে গ্রেড পে ৪,২০০ টাকা। পিজিটিদের ৯,৩০০-৩৪,৮০০ টাকা, সঙ্গে গ্রেড পে ৪,৮০০ টাকা। টিজিটিদের ৯,৩০০-৩৪,৮০০ টাকা, সঙ্গে গ্রেড পে ৪,৬০০ টাকা।

শূন্যপদের বিন্যাস জানতে ক্লিক করুন

যোগ্যতা (সম্পূর্ণ হতে হবে আবেদনের শেষ তারিখের মধ্যে): পোস্ট কোড ৮৮/১৭ অ্যাসিস্ট্যান্ট টিচার (নার্সারি): মোট অন্তত ৪৫ শতাংশ নম্বর সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি বা সমতুল এবং কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে নার্সারি টিচার এডুকেশনে দু বছরের ডিপ্লোমা/সার্টিফিকেট বা বিএড (নার্সারি)। সেকেন্ডারি লেভেলে হিন্দি বিষয় হিসাবে নিয়ে পাশ করে থাকতে হবে।

পোস্ট কোড ৮৯/১৭ অ্যাসিস্ট্যান্ট টিচার (প্রাইমারি): (১) মোট অন্তত ৫০ শতাংশ নম্বর সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি বা সমতুল এবং কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে এলিমেন্টারি এডুকেশনে দু বছরের ডিপ্লোমা অথবা ওই নম্বর সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি বা সমতুল সহ চার বছরের ব্যাচেলর অব এলিমেন্টারি এডুকেশন অথবা এনসিটিইর ২০০২-এর রেগুলেশন্স অনুযায়ী ৪৫ শতাংশ নম্বর সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি বা সমতুল এবং এলিমেন্টারি এডুকেশনে দু বছরের ডিপ্লোমা অথবা ৫০ শতাংশ নম্বর সহ সিনিয়র সেকেন্ডারি বা সমতুল এবং কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে এডুকেশনে (স্পেশ্যাল এডুকেশন) দু বছরের ডিপ্লোমা অথবা গ্র্যাজুয়েশন সহ এলিমেন্টারি এডুকেশনে দু বছরের ডিপ্লোমা। (২) সিটেট পাশ হতে হবে। (৩) মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত ইংরেজি/হিন্দি/উর্দু/পাঞ্জাবি বিষয় হিসাবে নিয়ে পাশ করে থাকতে হবে। তপশিলি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও দিল্লির ওবিসিরা নম্বরে ছাড় পাবেন।

পোস্ট কোড ১০০/১৭-১৩০/১৭ পিজিটি: সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি সঙ্গে বিটি/বিএড। পিএইচডি করা থাকলে বিএডের শর্ত শিথিলযোগ্য। উচ্চমাধ্যমিক, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর প্রথম বিভাগে পাশ করে থাকলেও বিএড ছাড়া আবেদন করা যাবে, সেক্ষেত্রে চাকরি পেলে ৩ বছরের মধ্যে বিটি/বিএড করে ফেলতে হবে। বাঞ্ছনীয় যোগ্যতা: সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মাধ্যমিক/ উচ্চমাধ্যমিক স্কুলে বা কলেজে পড়ানোর অভিজ্ঞতা।

পোস্ট কোড ১৩১/১৭-১৩৮/১৭ টিজিটি: (১) (ক) সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ৪৫ শতাংশ নম্বর সহ অনার্স/ পাস কোর্সে ব্যাচেলর ডিগ্রি অথবা সমতুল সঙ্গে বিএড। বিষয়টি গ্র্যাজুয়েশনের অন্তত ২ বছর পাঠ্য থাকা দরকার। গ্র্যাজুয়েশন স্তরে ঐচ্ছিক বিষয় হিসাবে অন্তত দুটি স্কুলপাঠ্য বিষয় পড়ে থাকতে হবে, তারমধ্যে একটি হতে হবে ইংলিশ, ম্যাথমেটিক্স, ন্যাচারাল সায়েন্স/ ফিজিক্যাল সায়েন্স, সোশ্যাল সায়েন্স— এই বিষয়গুলির মধ্যে। ওপরের কোনো বিষয়ে স্নাতকোত্তর যোগ্যতাধারী, তপশিলি ও শারীরিক প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে ৪৫ শতাংশ নম্বরের শর্ত শিথিলযোগ্য। (খ) ন্যাচারাল/ফিজিক্যাল সায়েন্সের ক্ষেত্রে মূল বিষয় হিসাবে থাকতে হবে কেমিস্ট্রি/ ফিজিক্স/ বায়োলজি/ বটানি/ জুলজি। সোশ্যাল সায়েন্সের ক্ষেত্রে মূল বিষয় হিসাবে থাকতে হবে  হিস্ট্রি/ পলসায়েন্স/ ইকোনমিক্স/ জিওগ্রাফি/ বিজনেস স্টাডিজ/ সোশিওলোজি/সাইকোলজি। (২) টিচিংয়ে ডিগ্রি/ডিপ্লোমা থাকতে হবে। (৩) সিটেট পাশ করে থাকতে হবে। (৪) কাজ চালানোর মতো হিন্দি জানা চাই।

পোস্ট কোড ১৩৯/১৭-১৪৭/১৭ টিজিটি: (১) সংশ্লিষ্ট ভাষা বিষয়ে অনার্স ডিগ্রি অথবা যে-কোনো বিষয়ে গ্র্যাজুয়েট কিন্তু তাতে ইলেক্টিভ হিসাবে সংশ্লিষ্ট ভাষা এবং একটি অতিরিক্ত ভাষা বা একটি স্কুলসাবজেক্ট থাকা চাই, মোট অন্তত ৪৫ শতাংশ নম্বর সহ। বিষয়টি গ্র্যাজুয়েশনের অন্তত ২ বছর পাঠ্য থাকা দরকার। হিন্দির ক্ষেত্রে কিছু সমতুল যোগ্যতাও আছে, ওয়েবসাইটে। (২) টিচিংয়ে ডিগ্রি/ডিপ্লোমা বা সিনিয়র এংলো ভার্নাকুলার সার্টিফিকেট। (৩) সিটেট পাশ। (৪) হিন্দি জানা আবশ্যিক।

পোস্ট কোড ৮৭/১৭ স্পেশ্যাল এডুকেটর টিচার: (১) গ্র্যাজুয়েট, সঙ্গে বিএড (স্পেশ্যাল এডুকেশন), অথবা স্পেশ্যাল এডুকেশনে ২ বছরের ডিপ্লোমা সহ বিএড, অথবা স্পেশ্যাল এডুকেশনে প্রফেশনাল পিজি ডিগ্রি অথবা আরসিআই স্বীকৃত সমতুল যোগ্যতা। (২) সিটেট পাশ হতে হবে।

অন্যান্য পদের জন্য প্রয়োজনীয় যোগ্যতা ওয়েবসাইটে বিস্তারিত জানানো আছে।

বয়সসীমা (আবেদনের শেষ তারিখে): পিজিটি/ লেকচারার-এর ক্ষেত্রে বয়স হতে হবে ৩৬ বছরের কম। টিজিটির ক্ষেত্রে ৩০ বছরের কম, মহিলা প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়স হতে হবে সর্বাধিক ৪০ বছর। মিউজিক টিচার/ ড্রয়িং টিচার/ লাইব্রেরিয়ান অ্যান্ড অ্যাসিস্ট্যান্ট টিচার (প্রাইমারি ও নার্সারি), ডোমেস্টিক সায়েন্স টিচারের ক্ষেত্রে ৩০ বছরের বেশি হলে হবে না। টিজিটিদের ক্ষেত্রে বয়স হতে হবে ৩২ বছরের কম।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: লেখা পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। লেখা পরীক্ষা হবে দুটি ভাগে, টিয়ার ওয়ান ও টিয়ার টু। নেগেটিভ মার্কিং থাকবে।

পরীক্ষার ফি: ১০০ টাকা। তপশিলি জাতি/ উপজাতি, শারীরিক প্রতিবন্ধী, প্রাক্তন সেনাকর্মী ও মহিলা প্রার্থীদের ফি দিতে হবে না। এসবিআই ই-পের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে।

আবেদনের পদ্ধতি: http://dsssbonline.nic.in ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইন আবেদন করতে হবে। আবেদন করা যাবে ৫ জানুয়ারি ২০১৮ থেকে ৩১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *