fbpx

কেন্দ্রে কয়েকহাজার ইনস্পেক্টর, অ্যাসিস্ট্যান্ট, অডিটর নিয়োগের আবেদন

পশ্চিমবঙ্গ সহ বিভিন্ন রাজ্যে ও নয়াদিল্লিতে ছড়িয়ে থাকা কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত অফিস ও মন্ত্রকের কয়েক হাজার গ্রুপ বি ও সি-র শূন্যপদের জন্য প্রার্থী বাছাই করা হবে স্টাফ সিলেকশন কমিশনের কম্বাইন্ড গ্র্যাজুয়েট লেভেল এগজামিনেশন, ২০১৮-র মাধ্যমে। নিচের যোগ্যতার যে-কোনো ভারতীয়রা আবেদন করতে পারবেন।  অনলাইন আবেদন করা যাবে ৪ জুন ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত। এফ নম্বর- 3/1/2018-P&P-I. শূন্যপদের হিসাব এখনও সম্পূর্ণ হয়নি, জানা যাবে ফল বেরনোর সময়।

বেতনক্রম: এ, বি, সি-ভুক্ত পদগুলির মূল বেতন ৯৩০০-৩৪৮০০ টাকা, ডি-ভুক্ত পদের জন্য ৫২০০-২০২০০ টাকা। সঙ্গে পদমর্যাদা অনুযায়ী গ্রেড পে ও অন্যান্য ভাতা।

কী-কী পদ/সার্ভিসে চাকরি:

নিয়োগ হবে এইসব পদে (মোট ৩টি ভাগ বা গ্রুপে):

() (ক্রমিক সংখ্যা ১) অ্যাসিস্ট্যান্ট অডিট অফিসার (ইন্ডিয়ান অডিট অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস ডিপার্টমেন্ট আন্ডার সিএজি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২) অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাকাউন্টস অফিসার (ইন্ডিয়ান অডিট অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস ডিপাটর্মেন্ট সিএজি, গ্রুপ বি),

(বি) (ক্রমিক সংখ্যা ৩) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (সেন্ট্রাল সেক্রেটারিয়েট সাভির্স, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৪) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৫) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (মিনিস্ট্রি অব রেলওয়েজ, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৬) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (মিনিস্ট্রি অব এক্সটারনাল অ্যাফেয়ার্স, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৭) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (এএফএইচকিউ, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৮) অ্যাসিস্ট্যান্ট (আদার মিনিস্ট্রিজ/ ডিপার্টমেন্টস/অর্গানাইজেশনস, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৯) অ্যাসিস্ট্যান্ট (আদার মিনিস্ট্রিজ/ ডিপার্টমেন্টস/ অর্গানাইজেশন, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১০) অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (আদার মিনিস্ট্রিজ/ ডিপার্টমেন্টস/অর্গানাইজেশনস, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১১) অ্যাসিস্ট্যান্ট (আদার মিনিস্ট্রিজ/ ডিপার্টমেন্টস/অর্গানাইজেশনস, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১২) অ্যাসিস্ট্যান্ট/সুপারিন্টেন্ডেন্ট (আদার মিনিস্ট্রিজ/ ডিপার্টমেন্টস/অর্গানাইজেশনস, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৩) ইনস্পেক্টর অব ইনকাম ট্যাক্স (সিবিডিটি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৪) ইনস্পেক্টর সেন্ট্রাল এক্সাইজ (সিবিইসি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৫) ইনস্পেক্টর প্রিভেন্টিভ অফিসার (সিবিইসি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৬) ইনস্পেক্টর এগজামিনার (সিবিইসি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৭) অ্যাসিস্ট্যান্ট এনফোর্সমেন্ট অফিসার (ডিরেক্টরেট অব এনফোর্সমেন্ট, ডিপার্টমেন্ট অব রেভেনিউ, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৮) সাব ইনস্পেক্টর (সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ১৯) ইনস্পেক্টর (ডিপার্টমেন্ট অব পোস্ট),

(ক্রমিক সংখ্যা ২০) ডিভিশনাল অ্যাকাউন্ট্যান্ট (অফিস সিএজি, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২১) ইনস্পেক্টর (সেন্ট্রাল ব্যুরো অব নার্কোটিক্স, গ্রুপ বি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২২) সাব ইনস্পেক্টর (ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি, গ্রুপ বি),

(সি)(ক্রমিক সংখ্যা ২৩) জুনিয়র স্ট্যাটিস্টিক্যাল অফিসার (এম/ও স্ট্যাটিস্টিক্স অ্যান্ড প্রোগ্রাম ইমপ্লিমেন্টেশন, গ্রুপ বি),

(ডি)(ক্রমিক সংখ্যা ২৪) অডিটর (অফিস সিঅ্যান্ডএজি, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২৫) অডিটর (অফিসেস আন্ডার সিজিডিএ, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২৬) অডিটর (আদার মিনিস্ট্রি/ডিপার্টমেন্টস),

(ক্রমিক সংখ্যা ২৭) অ্যাকাউন্ট্যান্ট (অফিসেস আন্ডার সিঅ্যান্ডএজি, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২৮) অ্যাকাউন্ট্যান্ট/ জুনিয়র অ্যাকাউন্ট্যান্ট (আদার মিনিস্ট্রি/ ডিপার্টমেন্টস, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ২৯) সিনিয়র সেক্রেটারিয়েট অ্যাসিস্ট্যান্ট/ আপার ডিভিশন ক্লার্ক (সেন্ট্রাল গভর্নমেন্ট অফিস/ মিনিস্ট্রিজ সিএসসিএস ক্যাডার, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৩০) ট্যাক্স অ্যাসিস্ট্যান্ট (সিবিডিটি, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৩১) ট্যাক্স অ্যাসিস্ট্যান্ট (সিবিইসি, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৩২) সাব-ইনস্পেক্টর (সেন্ট্রাল ব্যুরো অব নারকোটিক্স, গ্রুপ সি),

(ক্রমিক সংখ্যা ৩৩) আপার ডিভিশন ক্লার্ক (ডিরেক্টরেট জেনাঃ বর্ডার রোড অর্গানাইজেশন, শুধুমাত্র পুরুষ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন, গ্রুপ সি)।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: অ্যাসিস্ট্যান্ট অডিট অফিসার/ অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাকাউন্টস অফিসার পদের ক্ষেত্রে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে ব্যাচেলর ডিগ্রি। বাঞ্ছনীয় যোগ্যতা: চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট অথবা কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্ট অথবা কোম্পোনি সেক্রেটারিশিপ অথবা কমার্স/ বিজনেস স্টাডিজ/ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (ফিনান্স) অথবা বিজনেস ইকোনমিক্সে মাস্টার ডিগ্রি।

জুনিয়র স্ট্যাটিস্টিক্যাল অফিসার পদের ক্ষেত্রে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে যে-কোনো বিষয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রি (অন্তত দ্বাদশ শ্রেণি স্তরে ম্যাথমেটিক্সে অন্তত ৬০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে) অথবা কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে স্ট্যাটিস্টিক্স একটি বিষয় সহ যে-কোনো বিষয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রি।

বাকি পদগুলির ক্ষেত্রে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় বা ইনস্টিটিউট থেকে ব্যাচেলর ডিগ্রি। তবে অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (সিএসএস), অ্যাসিস্ট্যান্ট সেকশন অফিসার (এমইএ), অ্যাসিস্ট্যান্ট সিরিয়াস ফ্রড ইনভেস্টিগেশন অফস ও অ্যাসিস্ট্যান্ট (জিএসআই) পদের জন্য কম্পিউটার দক্ষতা থাকা দরকার।

অন্তিম বছরের ছাত্রছাত্রীরাও শর্তসাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন।

সবক্ষেত্রেই শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পূর্ণ হতে হবে ১ আগস্ট ২০১৮ তারিখের মধ্যে।

বয়সসীমা (১ আগস্ট ২০১৮ তারিখে): () গ্রুপের পদগুলির জন্য ৩০-এর বেশি নয়, (বি) গ্রুপের ৩, ৫, ৬, ৭, ৯ নং (২০-৩০ বছর, অর্থাৎ জন্মতারিখ ২-৮-১৯৮৮ থেকে ১-৮-১৯৯৮), ৮ (১৮-৩০), ৪, ১০, ১১, ১২, ১৩, ১৪, ১৫, ১৬ (৩০-এর বেশি যেন না হয়), ১৭ নং (৩০ পর্যন্ত), ২১ নং (১৮-২৭ বছর) (সি) গ্রুপের জন্য ৩২ বছর পর্যন্ত, (ডি) গ্রুপের পদগুলির জন্য ১৮-২৭ বছর ( ৩১ নং ট্যাক্স অ্যাসিস্ট্যান্ট ২০-২৭ বছর)। তপশিলি, ওবিসি, প্রাক্তন সমরকর্মী, বিধবা/বিবাহবিচ্ছিন্না/আইনত পতিসঙ্গ বিচ্ছিন্না প্রভৃতি প্রার্থীরা নিয়মানুযায়ী বয়সে ছাড় পাবেন।

দৈহিক মাপজোক: ইনস্পেক্টর (সেন্ট্রাল এক্সাইজ/এগজামিনার/প্রিভেন্টিভ অফিসার) পদের ক্ষেত্রে। পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে অন্তত ১৫৭.৫ সেমি। বুকের ছাতি ৮১ সেমি এবং ৫ সেমি পর্যন্ত ফোলাতে পারতে হবে। গাড়োয়ালি, অসমিয়া, গোর্খা এবং তপশিলি উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতায় ৫ সেমি পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হবে। মহিলা প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ১৫২ সেমি এবং ওজন ৪৮ কেজি। গাড়োয়ালি, অসমিয়া, গোর্খা এবং তপশিলি উপজাতি প্রার্থীরা উচ্চতা এবং ওজনে যথাক্রমে ২.৫ সেমি এবং ২ কেজি ছাড় পাবেন। ফিজিক্যাল টেস্টে পুরুষ প্রার্থীদের ১৫ মিনিটে ১৬০০ মিটার হাঁটতে হবে এবং ৩০ মিনিটে ৮ কিলোমিটার সাইক্লিং করতে হবে। মহিলা প্রার্থীদের ২০ মিনিটে ১ কিলোমিটার হাঁটতে হবে। ২৫ মিনিটে ৩ কিলোমিটার সাইক্লিং করতে হবে।

সাব ইনস্পেক্টর (সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন) পদের ক্ষেত্রে পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে অন্তত ১৬৫ সেন্টিমিটার, পুরুষ প্রার্থীদের বুকের ছাতি ৭৬ সেন্টিমিটার। মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা হতে হবে ১৫০ সেন্টিমিটার। পার্বত্য অঞ্চল ও উপজাতিভুক্ত পুরুষ ও মহিলারা উচ্চতার ক্ষেত্রে ৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত ছাড় পাবেন। দৃষ্টিশক্তি: চশমা পরে বা চশমা ছাড়া দূরের দৃষ্টি একচোখে ৬/৬, অন্য চোখে ৬/৯। কাছের দৃষ্টি এক চোখে ০.৬ এবং অন্যচোখে ০.৮।

সাবইনস্পেক্টর ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি পদের ক্ষেত্রে পুরুষ প্রার্থীদের উচ্চতা ১৭০ সেন্টিমিটার। বুকের ছাতি ৫ সেমি ফোলানোর ক্ষমতা সহ ৭৬ সেন্টিমিটার। মহিলা প্রার্থীদের উচ্চতা দরকার ১৫০ সেন্টিমিটার। পার্বত্য অঞ্চল ও উপজাতিভুক্ত পুরুষ ও মহিলা প্রার্থীরা উচ্চতার ক্ষেত্রে ৫ সেন্টিমিটার ছাড় পাবেন। চশমা সহ ও চশমা ছাড়া দূরের দৃষ্টি হতে হবে একচোখে ৬/৬ এবং অন্যচোখে ৬/৯। কাছের দৃষ্টি একচোখে ০.৬ এবং অন্য চোখে ০.৮।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: কম্পিউটার ভিত্তিক লিখিত পরীক্ষা, কম্পিউটার প্রফিশিয়েন্সি টেস্ট/ স্কিল টেস্ট (যে পদে যেটি প্রযোজ্য) এবং নথি যাচাইয়ের মধ্যে দিয়ে প্রার্থী বাছাই করবে স্টাফ সিলেকশন কমিশন। লিখিত পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ২৫ জুলাই থেকে ২০ আগস্ট ২০১৮, ব্যাচে-ব্যাচে ভাগ করে। পরীক্ষাকেন্দ্রের তালিকা ও কোড নম্বর পাবেন নিচের ওয়েবসাইটে।

আবেদন ফি: আবেদন ফি ১০০ টাকা। এসবিআই চালান, ডেবিট কার্ড/ ক্রেডিট কার্ড বা এসবিআই নেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমেও ফি জমা দেওয়া যেতে পারে। মহিলা, তপশিলি জাতি, তপশিলি উপজাতি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও প্রাক্তন সেনাকর্মীদের আবেদনের ফি দিতে হবে না।

আবেদনের পদ্ধতি: www.ssc.nic.inhttp://www.ssconline.nic.in ওয়েবসাইটে গিয়ে বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি পাবেন, সেইমতো অনলাইন আবেদন করতে হবে। বৈধ ইমেল আইডি ও ফোন নম্বর থাকতে হবে। অনলাইন আবেদন করা যাবে ৪ জুন ২০১৮ তারিখ বিকাল ৫টা পর্যন্ত। দরখাস্তে শিক্ষাগত যোগ্যতার কোড, পাশ করা বিষয়ের কোড, কাস্ট ইত্যাদির কোড লিখতে হবে স্টাফ সিলেকশনের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী, তালিকা পাওয়া যাবে কমিশনের ওয়েবসাইটেই। বয়সসীমা, বেতনক্রম, পরীক্ষার প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয় বিস্তারিত জানা যাবে উপরোক্ত ওয়েবসাইটে।

গুরুত্বপূর্ণ তারিখ: অনলাইন আবেদন করা যাবে ৪ জুন ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত। কম্পিউটার বেসড অবজেক্টিভ টাইপের পরীক্ষা টিয়ার ওয়ান ২৫ জুলাই থেকে ২০ আগস্ট ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত, ব্যাচে ব্যাচে ভাগ করে। টিয়ার টু  (অবজেক্টিভ), টিয়ার থ্রি (ডেসক্রিপটিভ) ও টিয়ার ফোর (স্কিল টেস্টের) তারিখ এখনও জানানো হয়নি। সময়মতো ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। টিয়ার-১ ও টিয়ার-২-এর ফলের ভিত্তিতে টিয়ার-থ্রির জন্য বিবেচিত হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *