fbpx

নারীর আত্মসুরক্ষায় কলকাতা পুলিশের ‘তেজস্বিনী’ প্রশিক্ষণ

শুধু কলকাতা নয় সর্বত্রই পথেঘাটে চলতে মহিলাদের যে হারে নানান সামাজিক সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বা সেই সংখ্যা দিন-দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে পুলিশ প্রশাসন থেকে অনেকেই চিন্তিত। চলন্ত বাসে-ট্রামে, পথেঘাটে অনেক মহিলাই ‘ইভ টিজিং’-এর শিকার। আবার কোনো-কোনো ক্ষেত্রে শুধু অভব্য আচরণই নয়, অশালীন হেনস্থাও ঘটছে। শ্লীলতাহানির ঘটনাও আছে। ইভটিজিংয়ের শিকার কলেজ পড়ুয়া থেকে গৃহবধূ কেউই বাদ যান না। কিছু-কিছু প্রতিবাদ হলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই মহিলারা ভয়ে বা সামাজিক হেনস্থার কারণে মুখ বুজে থাকতে বাধ্য হন। প্রতিবাদ করতে পারেন না। এবার থেকে মহিলারা যাতে পথে-ঘাটে হেনস্থার হাত থেকে নিজেরাই নিজেদের রক্ষা করতে বা হেনস্থা রুখতে পারেন, সেই লক্ষ্যে কলকাতা পুলিশের উদ্যোগে বিভিন্ন ব্যাচে তৈরি হচ্ছেন ‘তেজস্বিনী’রা। এই প্রশিক্ষণ নেওয়া থাকলে আত্মরক্ষা তো হলই, ভবিষ্যতে পুলিশের কোনো-কোনো চাকরিতে কিছুটা বাড়তি সুবিধা পাওয়াও অসম্ভব নয়।

আমরা জয়পুরের আইপিএস অফিসার তেজস্বী গৌতমের কথা জানি। যিনি শুধু একজন আইপিএস অফিসারই ছিলেন না, কাজের বাইরে মহিলাদের হেনস্থার হাত থেকে আত্মরক্ষার পাঠও দিতেন। নারী অধিকার বিষয়ে সচেতনতার পাঠ দিতেন এই আইপিএস। তাঁর পথ অনুসরণ করে বহু নারী উপকৃত হয়েছেন। বার-বার সংবাদের শিরোনামও হয়েছেন এই অফিসার। তেমনই নারীদের আত্মসুরক্ষার পাঠ দিতে কলকাতা পুলিশের উদ্যোগে গড়ে উঠছে নিখরচায় ‘তেজস্বিনী’ প্রশিক্ষণ। পুলিশের সাহায্যে যাঁরা প্রশিক্ষিত হয়ে উঠবেন আত্মসুরক্ষার কাজে। সম্প্রতি শেষ হওয়া প্রথম ব্যাচের প্রশিক্ষণে স্কুলের ছাত্রী থেকে গৃহবধূরাও অংশ নিলেন। রাস্তায় বা গাড়িতে অভদ্রতার শিকার হলে সামান্য চুড়ি-কাঁটা-ক্লিপও যে কত বড় আত্মরক্ষার অস্ত্র হয়ে উঠতে পারে সে শিক্ষা তো আছেই, সঙ্গে আরও অনেক কিছু। মার্শাল আর্টের মতো কিছু কলাকৌশল। হয়ে গেল পাঁচ দিনের এমনই এক কর্মশালা। ১৯-২৩ মে, সকাল ৭টা থেকে ১০টা। এই হাতেকলমে প্রশিক্ষণ নিতে স্কুল-কলেজের ছাত্রী থেকে গৃহবধূরাও অংশ নিয়েছিলেন। কলকাতা পুলিশের সার্জেন্ট ইনস্টিটিউট-এর উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণ থেকেই ওঁরা ফিরেছেন মানসিক জোর আর আত্মবিশ্বাস নিয়ে।

কলকাতা পুলিশও ব্যাপক সাড়া পেয়ে প্রতি দুমাস অন্তর এমন কর্মশালার আয়োজন করতে উদ্যোগী হয়েছে। চলছে তারই আগামী প্রস্তুতি। বিস্তারিত জানতে পারবেন কলকাতা পুলিশের সদর দপ্তরে, ১৮এ লালবাজার স্ট্রিট, কলকাতা-৭০০১ ঠিকানায়। ফোন 033 2250 5256 সকাল ১১টা থেকে ৫টা। খোঁজ রাখতে পারেন এই ওয়েবসাইটেও: http://cpsgtinst.org/

ময়দানের পুলিশ অ্যাথলেটিক ক্লাবে প্রশিক্ষণ। নানান বয়সে ভাগ করে কয়েকশো প্রার্থীকে সুরক্ষার প্রথম পাঠ ও নানা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। পরবর্তীকালে সেই সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে বলেই অনুমান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *