fbpx

গ্রামীণ ডাকসেবক নিয়োগ পরিস্থিতি কোথায় কেমন

ডাকবিভাগের পশ্চিম বঙ্গ সার্কলে ৫৭৭৮ জন গ্রামীণ ডাকসেবক নিয়োগের জন্য অনলাইন দরখাস্ত নেওয়া হয় গত ৫ এপ্রিল থেকে ৪ মে পর্যন্ত। বিজ্ঞপ্তির তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৮ (http://www.westbengalpost.gov.in/docs/upload/7272540bcbd002eca21fdcb24210d922.pdf)।  ফলাফল প্রায় পুরোটাই কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারিত হয়ে যাবে।

মোট ২০টি রাজ্যসার্কলে ২৯৯৫৩ জন গ্রামীণ ডাকসেবক নিয়োগের জন্য ২০১৭-র এপ্রিল থেকে অনলাইন দরখাস্ত নেওয়া শুরু হয়েছিল বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সার্কলে। দরখাস্তের সময় সাধারণভাবে ১ মাস, কোথাও-কোথাও সময় বাড়ানো হয়েছে নানা কারণে। পশ্চিম বঙ্গ, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশ ও উত্তরাখণ্ড সহ কয়েকটি সার্কলে মাঝে নিয়োগপ্রক্রিয়া বন্ধ করে দেওয়া হয় কোনো কারণ না দেখিয়ে। পশ্চিম বঙ্গের ক্ষেত্রে ১০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত দরখাস্ত নিয়ে আবার ১৮ জুলাই ২০১৭ একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ২১ আগস্ট-২৬ আগস্ট চালু করা হয় যাঁরা যথাসময়ে রেজিস্ট্রেশন করেও অনলাইন আবেদন করতে পারেননি শুধুমাত্র তাঁদের সুযোগ দেবার জন্য (http://www.westbengalpost.gov.in/docs/upload/49a889c6540529cd890c34b6f299da71.pdf)। পরে ৩ আগস্ট ২০১৭-র একটি বিজ্ঞপ্তিতে ২১-২৬ আগস্টের সূচি বদলে ৭-১২ আগস্ট করা হয় (http://www.westbengalpost.gov.in/docs/upload/f08ddf4f595e7fcf95bc127db9739169.pdf)। শেষ পর্যন্ত পুরো নিয়োগপ্রক্রিয়া বাতিলের বিজ্ঞপ্তি বেরোয় ৩ জানুয়ারি ২০১৮ (http://www.westbengalpost.gov.in/docs/upload/2cd5efe35a1aaa414dda048513913e20.pdf)।

ইতিমধ্যে নিয়োগ হয়ে গেছে ১৫টি সার্কলে, যদিও রেজাল্ট ডিক্লেয়ার্ড-এর তালিকায় ১১টি সার্কলের নাম আছে। অন্ধ্রেও একদফায় ১৯০ পদে নিয়োগ হয়ে আবার দরখাস্ত নেওয়া হচ্ছে ২২৮৬টি পদের জন্য। তাই এখনও অনলাইন দরখাস্ত নেওয়া চলছে অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড সার্কলেও। ঝাড়খণ্ডে ২৫৬ পদে নিয়োগের পর আবার আবেদনগ্রহণ ও নিয়োগ হয় ১২৩৬ পদে। তেলেঙ্গানাতেও ১২৭ পদে নিয়োগের পর আবার নাওয়া হয় ১০৫৮ পদে। কোনো শূন্যপদ দেখানো হয়নি রাজস্থান, জম্মু-কাশ্মীর ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রাজ্যগুলিতে। ফলাফল ঘোষণা বাকি ৫ সার্কলে— পশ্চিম বঙ্গ সহ উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, মধ্যপ্রদেশে, মোট ১৬৮১৭টি শূন্যপদে। অর্থাৎ নিয়োগ ফল বেরিয়ে গেছে/নিয়োগ হয়ে গেছে ১৩১৩৬ শূন্যপদে।

ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গে মামলা চলছে মাদ্রাসাশিক্ষা পর্ষদের দশম উত্তীর্ণদের মাধ্যমিকের সমতুল বলে গ্রাহ্য না করার ফলে। আদালত যদিও গত ১৯ মে এক অন্তর্বর্তী আদেশে বলেছেন মাদ্রাসা পর্ষদের এরকম দশমোত্তীর্ণদের আবেদন গ্রহণ করতে হবে এবং তাঁদের রেজিস্টার্ড পোস্টে আবেদনের জন্য ১০ দিন সময় দিতে হবে, যদিও তাঁদের নিয়োগ নির্ভর করবে মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তির ওপর। মামলার পরবর্তী শুনানি হবে হাইকোর্টের গ্রীষ্মাবকাশের পর জুলাইয়ে। কিন্তু ইন্ডিয়া পোস্ট-এর ওয়েবসাইটে বা ডাকবিভাগের বেঙ্গল সার্কলের ওয়েবসাইটে এই মামলা বা রায় সংক্রান্ত কোনো বিজ্ঞপ্তি দেখা যায়নি। যাই হোক, আদালতের নির্দেশমতো মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদের দশমোত্তীর্ণ প্রার্থীদের রেজিস্টার্ড ডাকে আবেদনগ্রহণ হয়ে থাকলে সেই ১০ দিনের পর মেধাতালিকা তৈরি হবে, ইতিমধ্যে মামলার শুনানিও আবার আদালতের গ্রীষ্মাবকাশের পর শুরু হবে, কাজেই পশ্চিম বঙ্গ সার্কলের ফল কবে বেরোবে এখনই বলা যাচ্ছে না, আরও কিছু দেরি হবার সম্ভাবনা। খবর যখনই হবে, জানিয়ে দেব আমাদের এই পোর্টালে।

3 thoughts on “গ্রামীণ ডাকসেবক নিয়োগ পরিস্থিতি কোথায় কেমন

  • June 2, 2018 at 7:08 pm
    Permalink

    west bengal post office result kobea hobea.

    Reply
  • June 2, 2018 at 9:26 pm
    Permalink

    Please give me all information of govt job

    Reply
  • July 7, 2018 at 3:33 pm
    Permalink

    Aami 2017 te gramin dak sevak a apply korechilam kintu seta batil hoye jai.. Pore 2018 te j notun notice deyoa hoi tate apply korte sudhu aamar aagar registration no. chayoa hoi kintu aamar registration a onno naam dekai obosese aami apply korte parlam emon ta keno holo????? plz keu bolun..

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *