fbpx

দিল্লিতে ১৬৩৭ প্যারামেডিক্যাল, স্টেনো, অ্যাসিস্ট্যান্ট

রাজধানী অঞ্চল দিল্লির রাজ্য সরকার (ন্যাশনাল ক্যাপিটাল টেরিটরি অব দিল্লি) ১৬৩৭ জন নার্সিং অফিসার, ফার্মাসিস্ট ইত্যাদি সহ ১৬৩৭ জন প্যারামেডিক্যাল কর্মী, স্টেনোগ্রাফার ও জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট নিয়োগ করবে। দেশের যে-কোনো রাজ্যের প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন, কেবল ওবিসিদের জন্য সংরক্ষিত আসনগুলিতে সংরক্ষণের সুবিধা পাবেন দিল্লির ওবিসি প্রার্থীরাই। এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি নম্বর ০৩/২০১৮ (এফ নং F.1 (477)/ DSSSB/ P&P/ 2018/ Advt./ 432), তারিখ ০৫/০৭/২০১৮।

শূন্যপদের বণ্টন:

ফার্মাসিস্ট (পোস্ট কোড ২/১৮): মোট শূন্যপদ ২৫১ (অসংরক্ষিত ৬, ওবিসি ১৪৬, তপশিলি জাতি ৫৫, তপশিলি উপজাতি ৪৪। এসবের মধ্যে থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধী ৪০, প্রাক্তন সমরকর্মী ১১১)।

নার্সিং অফিসার (পোস্ট কোড ৩/১৮): মোট শূন্যপদ ৬৮৪ (অসং ৩৪৫, ওবিসি ১৮৫, তঃজাঃ ১০৩, তঃউঃজাঃ ৫১। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ২৭, প্রাঃসঃকঃ ৬৮)।

ল্যাব টেকনিশিয়া গ্রেড-ফোর (পোস্ট কোড ৭/১৮): মোট শূন্যপদ ৩২ (অসং ১৬, ওবিসি ৮, তঃজাঃ ৫, তঃউঃজাঃ ৩। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ৪, প্রাঃসঃকঃ ১০)।

রেডিয়োগ্রাফার (পোস্ট কোড ৮/১৮): মোট শূন্যপদ ১৩৬ (অসং ৫২, ওবিসি ৪৯, তঃজঃ ২০, তঃউঃজঃ ১৫। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ৪, প্রাঃসঃকঃ ৩২)।

মেডিক্যাল রেকর্ড ক্লার্ক (পোস্ট কোড ১১/১৮): মোট শূন্যপদ ১১ (অসং ৮, ওবিসি ২, তঃজাঃ ১। এসবের মধ্যে থেকে প্রাঃসঃকঃ ১)।

অক্সিলিয়ারি নার্স মিডওয়াইফ (পোস্ট কোড ১২/১৮): মোট শূন্যপদ ৮৯ (অসং ৪৫, ওবিসি ২৪, তঃজঃ ১৩, তঃউঃজঃ ৭। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ৪, প্রাঃসঃকঃ ৯)।

ল্যাব অ্যাসিস্ট্যান্ট গ্রেড-ফোর (পোস্ট কোড ১৩ /১৮): মোট শূন্যপদ ১৭৮ (অসং ৮৩, ওবিসি ৫৬, তঃজঃ ১৪, তঃউঃজঃ ২৫। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ১৬, প্রাঃসঃকঃ ৬৮)।

ফিজিওথেরাপিস্ট (পোস্ট কোড ১৪ /১৮): মোট শূন্যপদ ১৭ (অসং ১২, ওবিসি ৪, তঃউঃজঃ ১। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ১, প্রাঃসঃকঃ ১)।

সোশ্যাল ওয়ার্কার (পোস্ট কোড ১৫/১৮): মোট শূন্যপদ ২১ (অসং ১২, ওবিসি ৫, তঃজাঃ ২, তঃউঃজাঃ ২। এসবের মধ্যে থেকে প্রাঃসঃকঃ ২)।

টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট (ওটি/ সিএসএসডি) (পোস্ট কোড ১৬/১৮): মোট শূন্যপদ ১০ (অসং ৭, ওবিসি ২, তঃজাঃ ১। এসবের মধ্যে থেকে প্রাঃসঃকঃ ১)।

অ্যাসিস্ট্যান্ট (ওটি/ সিএসএসডি) (পোস্ট কোড ১৯/১৮): মোট শূন্যপদ ১২ (অসং ৭, ওবিসি ৩, তঃজাঃ ১, তঃউঃজাঃ ১। এসবের মধ্যে থেকে প্রাঃসঃকঃ ৩)।

গ্রেড ফোর (ডিএএসএস)/ জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট (পোস্ট কোড ২০/১৮): মোট শূন্যপদ ৭৯ (অসং ৪৭, ওবিসি ১৯, তঃজাঃ ১৩। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ৪, প্রাঃসঃকঃ ৮, কৃতী খেলোয়াড়দের জন্য ৪)।

স্টেনোগ্রাফার (পোস্ট কোড ২১/১৮): মোট শূন্যপদ ১১৩ (অসং ৬৩, ওবিসি ৩১, তঃজাঃ ১৮, তঃউঃজাঃ ১। এসবের মধ্যে থেকে শাঃপ্রঃ ৫, প্রাঃসঃকঃ ১২, কৃতী খেলোয়াড়দের জন্য ৬)।

বেতনক্রম: পদগুলি গ্রুপ-সি পর্যায়ের। নিয়োগ হবে স্বাস্থ্য ও সমাজকল্যাণ বিভাগে, কেবল পোস্ট কোড ২০/১৮ ও ২১/১৮-র নিয়োগ হবে সার্ভিসেস বিভাগে। মূল বেতন পোস্ট কোড ২/১৮, ৫/১৮, ৬/১৮, ৭/১৮, ৮/১৮, ১১/১৮, ১২/১৮, ১৩/১৮, ১৬/১৮, ১৭/১৮, ১৮/১৮, ১৯/১৮, ২০/১৮ এবং ২১/১৮-র পদগুলির জন্য ৫২০০-২০২০০ টাকা, সঙ্গে গ্রেড পে পোস্ট কোড ২/১৮, ৫/১৮, ৭/১৮, ১৬/১৮, ১৭/১৮ এবং  ১৮/১৮-র পদগুলির জন্য ২৮০০ টাকা, ৬/১৮, ৮,১৮, ১৩/১৮, এবং ২১/১৮-র জন্য ২৪০০ টাকা, ১১/১৮, ১৯/১৮, ২০/১৮-র জন্য ১৯০০ টাকা। পোস্ট কোড ৩/১৮, ৪/১৮, ৯/১৮, ১০/১৮, ১৪/১৮ এবং ১৫/১৮-র পদগুলির মূল বেতন ৯৩০০-৩৪৮০০ টাকা, গ্রেড পে ৩/১৮-র জন্য ৪৬০০ টাকা, ৪/১৮, ৯/১৮, ১০/১৮, ১৪/১৮ এবং ১৫/১৮-র জন্য ৪২০০ টাকা। অন্যান্য ভাতাও আছে।

যোগ্যতা, বয়স:

ফার্মাসিস্ট (২/১৮) পদের জন্য বিএসসি ফার্মাসি। অথবা ফিজিক্স-কেমিস্ট্রি-বায়োলজি নিয়ে ১০+২ পাশের পর ফার্মাসিতে কাউন্সিল স্বীকৃত ডিপ্লোমা, সঙ্গে ১৮৪৮-এর ফার্মাসি আইন অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশন। বয়সসীমা ১৮-২৩ বছর।

নার্সিং অফিসার (৩/১৮): মাধ্যমিক/ সমতুলের পর নার্সিংয়ে স্বীকৃত ‘এ’ গ্রেড সার্টিফিকেট এবং মিডওয়াইফারি সার্টিফিকেট। সাবলীলভাবে হিন্দিতে কথা বলার দক্ষতা থাকা চাই। বয়সসীমা ৩২-এর কম।

অকুপেশনাল থেরাপিস্ট (৪/১৮): বিজ্ঞান শাখায় উচ্চমাধ্যমিক/প্রি-মেডিকেল/এফএসসি/সমতুল সহ অকুপেশনাল থেরাপিতে স্বীকৃত ডিপ্লোমা। বয়সসীমা ২১-৩২ বছর।

ল্যাব টেকনিশিয়ান গ্রেড ফোর (৭/১৮): মেডিকেল ল্যাব টেকনোলগিতে বিএসসি। অথবা বিজ্ঞান সহ মাধ্যমিক/উচ্চমাধ্যমিক/সমতুল পাশের পর এমএলটি ডিপ্লোমা এবং ল্যাব অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসাবে ৩ বছ্রের অভিজ্ঞতা (কোনধরনের সংস্থায় অভিজ্ঞতা বা কোনধরনের সংস্থায় নয় তা সাইটে জানা যাবে)।

রেডিওগ্রাফার (৮/১৮): বিজ্ঞান শাখায় উচ্চমাধ্যমিক/সমতুল পাশ সহ রেডিওগ্রাফিতে স্বীকৃত ২ বছরের সার্টিফিকেট/ডিপ্লোমা বা বিএসসি (রেডিওগ্রাফি) বা রেডিওলজিক্যাল টেকনোলজি (২ বছরের)। বয়সসীমা ১৮-২৭ বছর।

মেডিকেল রেকর্ড ক্লার্ক (১১/১৮): অন্যতম বিষয় হিসাবে ইংরেজি সহ মাধ্যমিক/সমতুল পাশ। ইংরেজিতে মিনিটে ৩০টি বা হিন্দিতে ২৫টি শব্দের টাইপিং দক্ষতা থাকতে হবে। বয়স: ১৮-২৭ বছর।

গজিলিয়ারি নার্স মিডওয়াইফ (১২/১৮): অগজিলিয়ারি নার্স মিডওয়াইফ হিসেবে রেজিস্টার্ড হতে হবে। পরিবার পরিকল্পনার কাজে কিছু প্রশিক্ষণ নিয়ে থাকা বাঞ্ছনীয়। বয়সসীমা ১৮-৩২ বছর।

ল্যাব অ্যাসিস্ট্যান্ট গ্রেড ফোর (১৩/১৮): বিজ্ঞান সহ মাধ্যমিক/উচ্চমাধ্যমিক/সমতুল পাশের পর এমএলটি ডিপ্লোমা। অথবা মেডিকেল লেবরেটরি টেকনোলজিতে সরকার স্বীকৃত ভোকেশনাল কোর্স করা থাকলে আবেদন করা যাবে। বয়সসীমা ১৮-২৭ বছর।

ফিজিওথেরাপিস্ট (১৪/১৮): বিজ্ঞান শাখায় উচ্চমাধ্যমিক/প্রি-মেডিকেল/এফএসসি পাশের পর ফিজিওথেরাপিতে স্বীকৃত ডিপ্লোমা। কোনো হাসপাতালে ফজিওথেরাপিস্ট হিসাবে ২ বছর কাজের অবিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়। বয়সসীমে ৩২-এর কম।

সোশ্যাল ওয়ার্কার (১৫/১৮): স্নাতকোওর হতে হবে সোশ্যাল সায়েন্সে। দুই বছরের রিসার্চ ওয়ার্ক থাকলে ভালো হয়। বয়সসীমা ২১-৩২ বছর।

টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট (ওটি/ সিএসএসডি) (১৬/১৮): বিজ্ঞান নিয়ে মাধ্যমিক/ উচ্চমাধ্যমিক পাশ সহ অপারেশন রুম অ্যাসিস্ট্যান্ট-এর স্বীকৃত কোর্স করা থাকলে এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগে (তালিকা সাইটে দেখা যাবে) ৫ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা অথবা বিএসসি সহ ওপরের মতো ৩ বছরের অভিজ্ঞতা থাকলে আবেদন করা যাবে। বয়সসীমা ২৭ বছরের কম।

অ্যাসিস্ট্যান্ট (ওটি/ সিএসএসডি) (১৯/১৮): বিজ্ঞান নিয়ে মাধ্যমিক/ উচ্চমাধ্যমিক পাশ এবং স্বীকৃত অপারেশন রুম অ্যাসিস্ট্যান্ট কোর্স করা থাকলে আবেদন করা যাবে। বয়সসীমা ২৭ বছরের কম।

গ্রেড ফোর (ডিএএসএস)/ জুনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট গ্রেড ফোর (২০/১৮): উচ্চমাধ্যমিক/ সমতুল পাশ, প্রতি মিনিটে ৩৫টি ইংরেজি বা ৩০টি হিন্দি শব্দ টাইপ করার ক্ষমতা থাকতে হবে। বয়সসীমা ১৮-২৭ বছর।

স্টেনোগ্রাফার (২১/১৮): উচ্চমাধ্যমিক পাশ, শর্টহ্যান্ডে প্রতি মিনিটে ৮০টি এবং টাইপিংয়ে ৪০টি ইংরেজি শব্দ বা ৩৫টি হিন্দি শব্দ তোলার ক্ষমতা থাকতে হবে। বয়সসীমা ১৮-২৭ বছর।

সবক্ষেত্রেই যোগ্যতা, বয়স ইত্যাদির শর্ত পূরণ করতে হবে অনলাইন আবেদনের শেষ তারিখে অর্থাৎ ১৩-৮-২০১৮ তারিখের মধ্যে। তপশিলি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও প্রাক্তন সমরকর্মী (গ্রুপ-সি ও বি)-রা নিয়মানুযায়ী বয়সের ছাড় পাবেন। কৃতী খেলোয়াড়, আবার বিয়ে না করা বিধবা/বিবাহবিচ্ছিন্না/ আইনত পতিসঙ্গবিচ্ছিন্নারাও বয়সে নির্ধারিত ছাড় পাবেন।  

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: অবজেক্টিভ টাইপের একটি লিখিত পরীক্ষা হবে। প্রশ্ন হবে ইংরেজি ও হিন্দিতে, অর্থাৎ দ্বিভাষিক। থাকবে নন-টেকনিক্যাল পদগুলির জন্য সেকশন এ-তে জেনারেল অ্যাওয়্যারনেস, জেনারেল ইন্টেলিজেন্স অ্যান্ড রিজনিং এবিলিটি, অ্যারিথমেটক্যাল অ্যান্ড নিউমেরিক্যাল এবিলিটি, হিন্দি ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কম্প্রিহেনশন ও ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ অ্যান্ড কম্প্রিহেনশন। টেকনক্যাল পদগুলির জন্য সেকশন বি-তে থাকবে সংশ্লিষ্ট কারিগরি বিষয়ে প্রশ্ন, অবজেক্টিভ টাইপেরই।

আবেদনের ফি: আবেদনের ফি ১০০ টাকা। দিতে হবে এসবিআই ই-পেমেন্টে। মহিলা, তপশিলি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও প্রাক্তন সমরকর্মীদের কোনো ফি দিতে হবে না।

আবেদন পদ্ধতি: আবেদন করতে হবে অনলাইনে, http://dsssbonline.nic.in ওয়েবসাইটের মাধ্যমে, ১৩ জুলাই থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত। একজন একাধিক পদের জন্য আবেদন করতে পারেন, সেক্ষেত্রে একাধিক পদের পরীক্ষা যুগ্মভাবে হলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর পদপছন্দের অগ্রাধিকার জেনে নেওয়া হবে ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশনের সময়। অন্যান্য প্রয়োজনীয় তথ্যও তখন জানা যাবে, দিল্লি স্টেট সাবর্ডিনেট সার্ভিসের লিঙ্কে: (www.dsssb.delhigovt.nic.in)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *