fbpx

রাজ্যে ২০০ ওয়ার্কস অ্যাকাউন্ট্যান্ট পদে আবেদন শুরু

ওয়েস্ট বেঙ্গল ওয়ার্কস অ্যাকাউন্ট্যান্ট-এর ২০০ শূন্যপদে নিয়োগের জন্য পশ্চিমবঙ্গ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ২০১৮ ওয়ার্কস অ্যাকাউন্ট্যান্ট রিক্রুটমেন্ট এগজামিনেশনের অনলাইন দরখাস্ত শুরু হয়েছে। গত ১৭ জুলাই আমাদের ওয়েব পোর্টালে এই খবরটি সংক্ষেপে জানানো হয়েছিল (http://jibikadishari.co.in/?p=6499)। অনলাইন দরখাস্ত শুরু হয়েছে, দেওয়া হল বিস্তারিত তথ্য। এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি নম্বর: ২৩/২০১৮। নিচের যোগ্যতার যে-কোনো ভারতীয়রা আবেদন করতে পারবেন।

শূন্যপদ: মোট ২০০ পদ, তারমধ্যে অসংরক্ষিত ১০০, তপশিলি জাতি ৪৪, তপশিলি উপজাতি ১২, ওবিসি এ ২০, ওবিসি বি ১৪, এমএসপি ৪, এইচআই ২, ব্লাইন্ড/ এলভি ২, এলডি/সিপি ২।

বেতনক্রম: পে ব্যান্ড থ্রি অনুযায়ী মূল বেতন ৭১০০-৩৭৬০০ টাকা, গ্রেড পে ৩৬০০ টাকা। সঙ্গে অন্যান্য ভাতা।

যোগ্যতা: ১) কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সায়েন্স বা কমার্সে ব্যাচেলর ডিগ্রি। ২) কম্পিউটার অপারেশনে প্রাথমিক জ্ঞান এবং কোনো নামী বা প্রতিষ্ঠিত ইনস্টিটিউট থেকে অন্তত ছয় মাসের কম্পিউটার টাইপিং কোর্স করে থাকতে হবে। ৩) বাংলায় লিখতে, পড়তে ও কথা বলতে জানতে হবে (নেপালিভাষীদের ক্ষেত্রে এই শর্ত প্রযোজ্য নয়)।

বয়সসীমা: ১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখের হিসেবে বয়সের ঊর্ধ্বসীমা ৩৯ বছর (জন্মতারিখ ২ জানুয়ারি ১৯৭৯ তারিখে বা তার পরে)। পশ্চিমবঙ্গের সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: রিক্রুটমেন্ট এগজামিনেশন হবে দুটি স্তরে। প্রথম স্তরে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা। দ্বিতীয় স্তরে মেইন পরীক্ষা, পার্সোন্যালিটি টেস্ট ও কম্পিউটার এফিশিয়েন্সি টেস্টের মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। প্রিলিমিনারি পরীক্ষা থেকে বাছাই প্রার্থীদের মেইন পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে। মেইন পরীক্ষা হবে শুধুমাত্র কলকাতায়। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় থাকবে জেনারেল নলেজ (৩৫টি প্রশ্ন, ৩৫ নম্বর), ইংলিশ (৪০টি প্রশ্ন, ৪০ নম্বর), ম্যাথমেটিক্স (৫০টি প্রশ্ন, ৭৫ নম্বর)। মোট ১৫০ নম্বরের পরীক্ষা। সময় ২ ঘণ্টা। অবজেক্টিভ মাল্টিপল চয়েস টাইপের প্রশ্ন হবে। নেগেটিভ মার্কিং থাকবে, চারটি ভুল উত্তরের জন্য ১ নম্বর করে কাটা হবে। ডেস্ক্রিপটিভ টাইপের মেইন পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে ইংলিশ প্রেসি রাইটিং (১৫ নম্বর), ইংলিশ রিপোর্ট রাইটিং (১৫ নম্বর), এসে রাইটিং ইংরেজি এবং বাংলা/ হিন্দি/ উর্দু/ নেপালি/ সাঁওতালি ভাষায় (৩৫ নম্বর), লেটার রাইটিং ইংরেজি এবং বাংলা/ হিন্দি/ উর্দু/ নেপালি/ সাঁওতালি ভাষায় (৩৫ নম্বর)। সময় ১৫০ মিনিট। মেইন পরীক্ষা থেকে নির্বাচিত প্রার্থীদের পার্সোন্যালিটি টেস্টের জন্য ডাকা হবে। সব শেষে কম্পিউটার এফিশিয়েন্সি টেস্ট।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার কেন্দ্র (ও ব্র্যাকেটে সেন্টার কোড): কলকাতা (০১), বর্ধমান (০২), মেদিনীপুর (০৩), বহরমপুর (০৪), শিলিগুড়ি (০৫), দার্জিলিং (০৬)।

আবেদনের ফি: ১৬০ টাকা। অনলাইন ফি দিলে বাড়তি ৫ টাকা এবং অফলাইনে দিলে ২০ টাকা ব্যাঙ্কের সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। পশ্চিমবঙ্গের তপশিলি জাতি/ উপজাতি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের আবেদনের ফি দিতে হবে না। অনলাইন আবেদনের ফি দেওয়া যাবে ৯ আগস্ট ২০১৮ তারিখ রাত ১২টা পর্যন্ত। অফলাইনে ফি দেওয়া যাবে ১০ আগস্ট ২০১৮ পর্যন্ত, ব্যাঙ্কের সময়সীমার মধ্যে, কিন্তু চালান ৯ আগস্টের মধ্যে জেনারেট করে রাখতে হবে।

আবেদনের পদ্ধতি: www.pscwbapplication.in এবং www.pscwbonline.gov.in ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইন আবেদন করতে হবে। বৈধ ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর থাকতে হবে। অনলাইন আবেদন করা যাবে ৯ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত। আবেদন সংক্রান্ত কোনো সমস্যা হলে যে-কোনো কাজের দিন সকাল ১০টা থেকে সনন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ৯৮৩৬২১৯৯৯৪, ৯৮৩৬২৮৯৯৯৪, ৯১২৩৯৭১৭৪৭ হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করতে পারেন। এছাড়া মেলও করতে পারেন pscwbhelp@gmail.com ইমেল আইডিতে। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য জানা যাবে উপরোক্ত ওয়েবসাইটে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *