fbpx

সংখ্যালঘুদের জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপের আবেদন শুরু

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের (মুসলিম, খ্রিষ্টান, শিখ, বৌদ্ধ, পারসি ও জৈন)মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য রাজ্য সরকারের এ বছরের বিভিন্ন স্কলারশিপের আবেদনের দিন ঘোষণা। পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও বিত্ত নিগম-এর উদ্যোগে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য একাধিক স্কলারশিপ, শিক্ষাঋণ প্রকল্পের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। স্কলারশিপগুলির জন্য আবেদনের শেষ তারিখ ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮।

প্রি-ম্যাট্রিক ও পোস্ট ম্যাট্রিক স্কলারশিপ:

প্রিম্যাট্রিক স্কলারশিপের জন্য যোগ্যতা— স্বীকৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১ম  থেকে ১০ম শ্রেণিতে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য। প্রথম শ্রেণি বাদ দিয়ে বিগত ক্লাসের চূড়ান্ত পরীক্ষায় ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে থাকতে হবে। পরিবারের বার্ষিক আয় থাকতে হবে ১ লক্ষ টাকার মধ্যে।

পোস্টম্যাট্রিক স্কলারশিপের জন্য যোগ্যতা— স্বীকৃত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উচ্চ-মাধ্যমিক, আইটিআই, ডিপ্লোমা, স্নাতক, পিএইচডি, এমফিল, বিএড কোর্স পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীরা পাবেন। বিগত ক্লাসের চূড়ান্ত পরীক্ষায় ৫০ শতাংশ নম্বর পেয়ে থাকতে হবে। পরিবারের বার্ষিক আয়  থাকতে হবে ২ লক্ষ টাকার মধ্যে।

আবেদন— অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার ওয়েবসাইট – www.scholarships.gov.in

অনলাইনে আবেদন করার পর তার প্রিন্ট-আউট, সঙ্গে  সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি (আয়ের প্রমান পত্র প্রধান/কাউন্সিলর/এমএলএ / গেজেটেড অফিসার দ্বারা প্রদত্ত), ব্যাংক বইয়ের ফটোকপি সমস্ত নিজের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে।

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম-মিনস স্কলারশিপ:

পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদ/উচ্চ-মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ / মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদ / পশ্চিমবঙ্গে অবস্থিত বোর্ড বা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্বীকৃত প্রতিষ্ঠানের একাদশ থেকে স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে পাঠরত, পলিটেকনিকে পাঠরত সংখ্যালঘু ছাত্র-ছাত্রীদের এই স্কলারশিপ দেওয়া হবে।

স্কলারশিপের জন্য যোগ্যতা—  পশ্চিমবঙ্গের অধিবাসী হতে হবে ও পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠরত হতে হবে। ২০১৮ বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষায় পাশ হতে হবে। পারিবারিক বার্ষিক আয় ২.৫ লক্ষ টাকার মধ্যে হতে হবে। উচ্চ-মাধ্যমিক, পলিটেকনিক ও স্নাতক কোর্সে পাঠরতরা বিগত পরীক্ষায় ৭৫% নম্বর, স্নাতকোত্তর পাঠরতরা বিগত সাম্মানিক স্নাতক পরীক্ষায় ৫৩%, ইঞ্জিনিয়ারিং-এ স্নাতকোত্তর পাঠরতরা বিগত ইঞ্জিনিয়ারিং পরীক্ষায় ৫৫%, কন্যাশ্রী (K3) ছাত্রী স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে পাঠরতদের বিগত পরীক্ষায় ৪৫% নম্বর পেয়ে থাকতে হবে

আবেদন—  অনলাইনে আবেদন করতে হবে।  আবেদন করার ওয়েবসাইট – www.svmcm.wbmdfc.co.in আয়ের শংসাপত্র কমপক্ষে জয়েন্ট বিডিও কর্তৃক প্রাপ্ত হতে হবে। প্রয়োজনীয় নথির স্ক্যান করা কপি অনলাইনে আপলোড করতে হবে।

মেরিট-কাম-মিনস স্কলারশিপ:

স্নাতক বা স্নাতকোত্তর পর্যায়ে মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিং, আইন প্রভিতি পেশাগত বা কারিগরি কোর্স পাঠরত ছাত্র-ছাত্রী এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

স্কলারশিপএর জন্য যোগ্যতা— বিগত চূড়ান্ত পরীক্ষায় অবশ্যই ৫০% নম্বর পেয়ে থাকতে হবে। প্রার্থীর পারিবারিক বার্ষিক আয় সর্বোচ্চ ২.৫ লক্ষ টাকা হতে হবে।

আবেদন— অনলাইনে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার ওয়েবসাইট: www.scholarships.gov.in  অনলাইনে সমস্ত প্রয়োজনীয় নথির স্ক্যান করা কপি আপলোড করতে হবে। আবেদনের প্রিন্ট-আউট নিয়ে তার সঙ্গে সমস্ত প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্রের কপি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমা দিতে হবে।

কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা:

১) প্রার্থীকে ভারতীয় নাগরিক ও পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা হতে হবে।

২) যে সমস্ত প্রাথী আগে আবেদন করেননি অর্থাৎ প্রথম আবেদন করছেন বা আগে স্কলারশিপ পা্ননি তাঁদের ক্ষেত্রে নতুন বা ফ্রেশ আবেদন করতে হবে।

৩) যাঁরা আগে আবেদন করে স্কলারশিপ পেয়েছেন, অর্থাৎ যাঁদের পার্মানেন্ট আইডি আছযাঁতাদের “রিনিউয়াল” করতে হবে।

৪) দূরশিক্ষায় পড়া প্রাথীরা আবেদন করতে পারবেন না।

৫) প্রি-ম্যাট্রিক স্কলারশিপ বাদ দিয়ে বাদ বাকি ক্ষেত্রে একটি ফোন নম্বর দিয়ে একটি আবেদন করা যাবে।

৬) ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সক্রিয় থাকতে হবে।

৭) আধার নম্বর থাকলে সেটা অবশ্যই আবেদন পত্রে উল্লেখ করতে হবে, আধার সম্বলিত যোগ্য প্রাথীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

কোনো অসুবিধা হলে যোগাযোগ নম্বর1800-120-2130

হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর 8017071714

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *