fbpx

কোস্ট গার্ডে মাধ্যমিক কুক, স্টুয়ার্ড

ভারতীয় কোস্ট গার্ডে ১০ম পাশ এন্ট্রি স্কিমে ০১/২০১৯ ব্যাচে ট্রেনিং দিয়ে কুক ও স্টুয়ার্ড পদে কিছু নাবিক (ডোমেস্টিক ব্রাঞ্চ) নিয়োগ করা হবে। ভারতীয় অবিবাহিত পুরুষরা আবেদনের যোগ্য। অফিসারদের মেসের রান্না, পরিবেশন, হিসাবপত্র সহ আনুষঙ্গিক কাজকর্ম ও অন্যান্য  কর্তব্য পালন করতে হবে। শুরুর মূল মাইনে ২১৭০০ টাকা, অন্যান্য ভাতা ও সুযোগ-সুবিধাও আছে। উন্নতির সুযোগ আছে প্রধান অধিকারীর পদ অবধি, সেই পদের মূল বেতন ৪৭৬০০ টাকা।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: মোট ন্যূনতম ৫০ শতাংশ নম্বর সহ ১০ম শ্রেণি/  সমতুল পাশ। তপশিলি ও জাতীয়/আন্তঃরাজ্য স্তরের কোনো ফিল্ড ইভেন্টে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানাধিকারী খেলোয়াড়রা নম্বরের ক্ষেত্রে ৫ শতাংশ ছাড় পাবেন।

বয়স: ১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখের হিসাব অনুযায়ী ন্যূনতম বয়সসীমা ১৮ বছর এবং বয়সের ঊধর্বসীমা ২২ বছর। অর্থাৎ জন্মতারিখ ১ এপ্রিল ১৯৯৭ থেকে ৩১ মার্চ ২০০১-এর মধ্যে হতে হবে। বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় তপশিলিরা ৫ বছর এবং ওবিসিরা ৩ বছর ছাড় পাবেন।

দৈহিক মাপজোক: ন্যূনতম উচ্চতা ১৫৭ সেমি। পার্বত্য অঞ্চলের বাসিন্দারা উচ্চতার ছাড় পাবেন। উচ্চতার সঙ্গে ওজন সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে। বুকের ছাতি অন্তত ৫ সেমি ফোলানোর ক্ষমতা থাকতে হবে। উচ্চতা ও বয়সের সঙ্গে উপযুক্ত ওজন থাকতে হবে। তবে ১০ শতাংশ কম-বেশি গ্রহণযোগ্য। চোখের দৃষ্টিমান ৬/৩৬ (ভালো চোখে) এবং ৬/৩৬ (খারাপ চোখে) উপযুক্ত শ্রবণশক্তি থাকতে হবে। ট্যাটু সংক্রান্ত কিছু কড়াকড়িও আছে।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: প্রথমে দরখাস্তের মূল্যায়নের ভিত্তিতে সেন্টার-অয়াড়ি প্রার্থী বাছাই করা হবে। এরপর লিখিত পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের তালিকা ওয়েবসাইটে দেওয়া হবে। লিখিত পরীক্ষা হবে আগামী নভেম্বরে কলকাতা (পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, ত্রিপুরা, অসম, মিজোরাম, মেঘালয়য়, মণিপুর, অরুণাচল প্রদেশ, নাগাল্যান্ড ও সিকিমের প্রার্থীদের জন্য), নয়ডা, চেন্নাই, মুম্বই এবং গান্ধীনগরে। যে রাজ্যের বাসিন্দা সেই রাজ্যের পরীক্ষাকেন্দ্রই বাছতে হবে, পরীক্ষায় থাকবে কোয়ন্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউড, ম্যাথমেটিক্স, জেনারেল সায়েন্স, জেনারেল অ্যাওয়্যারনেস (কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স, জেনারেল নলেজ), রিজনিং (ভার্বাল, নন-ভার্বাল)। লিখিত পরীক্ষায় সফল হলে ফিজিক্যাল ফিটনেস টেস্ট এবং সবশেষে মেডিক্যাল পরীক্ষা। ফিজিক্যাল ফিটনেস টেস্টে থাকবে ৭ মিনিটে ১.৬ কিলোমিটার দৌড়, ২০টি স্কোয়াট আপ (উঠবস), ১০টি পুশ আপ। ফিজিক্যাল ফিটনেস টেস্টের প্রতি ধাপে সফল হলে তবেই মেডিক্যাল টেস্ট হবে। পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করা যাবে ৮-১৫ নভেম্বর, এই লিঙ্কে: http://joinindiancoastguard.gov.in/print.aspx.  ফলাফল প্রকাশিত হবে মার্চে। ট্রেনিং শুরু ২০১৯-এর এপ্রিলে।

আবেদনের পদ্ধতি: www.joinindiancoastguard.gov.in ওয়েবসাইটে অনলাইনে আবেদন করতে হবে, ১৫ থেকে ২৯ অক্টোবর ২০১৮ বিকেল ৫টার মধ্যে। অপরচুনিটি লিঙ্কে ক্লিক করে নাবিক (ডোমেস্টিক ব্রাঞ্চ) বেছে আই এগ্রি-তে ক্লিক করতে হবে। তারপর নির্দেশমতো আবেদন করবেন। নিজের স্থায়ী ইমেল আইডি থাকা দরকার। নিজের সই (১০ থেকে ৩০ কেবির মধ্যে) ও পাসপোর্ট মাপের সাম্প্রতিক ফটো (১০ থেকে ৪০ কেবি) অন্তত ২০০ ডিপিআইয়ে জেপিজি ফর্ম্যাটে স্ক্যান করে রাখতে হবে আপলোড করার জন্য। সমস্ত প্রমাণপত্রাদি সঙ্গে নিয়ে দরখাস্ত করা ভালো বানান তথ্য ইত্যাদি নির্ভুল করার জন্য। পরীক্ষায় পাওয়া নম্বর লিখবেন দুই দশমিক সংখ্যা পর্যন্ত। দরখাস্ত চড়ান্তভাবে সাবমিট করার আগে আবার আগাগোড়া ভালো করে মিলিয়ে নেবেন, কারণ তারপর আর কোনো সংশোধন করা যাবে না। সমস্ত বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য www.joinindiancoastguard.gov.in ওয়েবসাইট দেখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *