fbpx

আয়ুষ বিষয়ে পিএইচডি করার জন্য দরকার আয়ুষ-নেট স্কোর

আয়ুর্বেদ, যোগা অ্যান্ড ন্যাচারোপ্যাথি, ইউনানি, সিদ্ধা ও হোমিওপ্যাথিতে পিএইচডি ফেলোশিপ (সিনিয়র রিসার্চ ফেলোশিপ) যাঁরা করতে চান তাঁদের জন্য আয়ুষ-নেট পরীক্ষা চালু করেছে ভারত সরকারের আয়ুষ মন্ত্রকের অধীন সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন আয়ুর্বেদিক সায়েন্সেস। ওই বিষয়গুলিতে গবেষণার কাজে উৎসাহ বাড়াতেই এই উদ্যোগ। এই মন্ত্রকের অধীনে আছে সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন আয়ুর্বেদিক সায়েন্সেস (সিসিআরএএস), সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন যোগা অ্যান্ড ন্যাচারোপ্যাথি (সিসিআরওয়াইএন), সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন ইউনানি মেডিসিন (সিসিআরিউএম), সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন সিদ্ধা (সিসিআরএস), সেন্ট্রাল কাউন্সিল ফর রিসার্চ ইন হোমিওপ্যাথি (সিসিআরএইচ)।

আয়ুষ-নেটকে স্বীকৃতি দিয়েছে ইউজিসিও। ফলে যেসব বিষয়ে ইউজিসির নিজের নেট প্রচলিত (যেমন যোগা) নেই এমন আয়ুষের কোনো বিষয়ে পিএইচডি করা যাবে আয়ুষ-নেট স্কোর থাকলে। আয়ুষ মন্ত্রকও সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়কে অনুরোধ জানিয়েছে, তাদের পিএইচডি কোর্সের জন্য কোনো প্রবেশিকা পরীক্ষার ব্যবস্থা থাকলে যেন আয়ুষ-নেট পাশ প্রার্থীদের ভর্তির ক্ষেত্রে সেই পরীক্ষা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। আয়ুষ-নেট পাশ করে ফেলোশিপ নিয়ে শিক্ষার্থী যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি করবেন সেখানে তখন তিনি সিনিয়র রিসার্চ ফেলো হিসাবে গণ্য হবেন। যাঁরা ওপরের কোনো কাউন্সিলের কোনো প্রকল্পে সিনিয়র রিসার্চ ফেলো হিসাবে কাজ করছেন তাঁরাও একইসঙ্গে আয়ুষ-নেট-এর পিএইচডি সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

যোগ্যতা: আয়ুষের সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি থাকতে হবে। তবে যোগা অ্যান্ড ন্যাচারোপ্যাথির ক্ষেত্রে একিভাবে পিজি ডিগ্রি অথবা ওই বিষয়ে গ্র্যাজুয়েশন সহ ওই বিষয়ে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা। শেষ বছরের ছাত্র-ছাত্রীরাও শর্তসাপেক্ষে এই পরীক্ষায় বসার জন্য আবেদন করতে পারেন, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে ফল বেরলে।

আবেদন করতে হবে অনলাইনে, ৩ অক্টোবরের মধ্যে। যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশিত হবে ৮ অক্টোবর। পরীক্ষা হবে ১৩ নভেম্বর, ই-অ্যাডমিশন সার্টিফিকেট ডাউনলোড করা যাবে ২৩ অক্টোবর থেকে। বিস্তারিত জানতে পারবেন এই লিঙ্কে: http://ayush.gov.in/ayush-net-2018

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *