fbpx

নেভিতে বিই পড়িয়ে অফিসারের ৩০০০ চাকরি

দুটি আলাদা বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সেলর হিসাবে ৩০০০ অবিবাহিত তরুণ নিয়োগ করবে ভারতীয় নৌবাহিনী। উচ্চমাধ্যমিক যোগ্যতার নিয়োগ। নিয়োগ হবে এই দুটি স্কিমে: (১) ৫০০ সেলর— আর্টিফিশার অ্যাপ্রেন্টিস (এএ), (২) ২৫০০ সেলর— সিনিয়র সেকেন্ডারি রিক্রুটস (এসএসআর)। দুই নিয়োগই হবে আগস্ট ২০১৯ ব্যাচে ট্রেনিং দিয়ে। আবেদন করতে হবে অনলাইনে।

(১) আর্টিফিশার অ্যাপ্রেন্টিস (এএ) পদের জন্য বেতনক্রম: প্রথমে ট্রেনিংয়ের সময় স্টাইপেন্ড মাসে ১৪৬০০ টাকা। ট্রেনিংয়ের শেষে মূল বেতনক্রম হবে ২১৭০০-৬৯১০০ টাকা। সঙ্গে এমএসপি ৫২০০ টাকা, ‘এক্স’ গ্রুপ পে ৬২০০ টাকা ও ডিএ। সামরিক চাকরির অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা ও ক্রমশ উচ্চতর র‍্যাঙ্কে উন্নতির সুযোগও আছে।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: ৬০ শতাংশ নম্বর সহ ১০+২ পাশ করে থাকতে হবে। ১০+২ স্তরে ম্যাথস, ফিজিক্স এবং সেই সঙ্গে কেমিস্ট্রি/ বায়োলজি/ কম্পিউটার সায়েন্সের মধ্যে যে-কোনো একটি বিষয় নিয়ে পড়ে থাকতে হবে।

বয়সসীমা: সাধারণ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে জন্ম তারিখ হতে হবে ১ আগস্ট ১৯৯৯ থেকে ৩১ জুলাই, ২০০২ তারিখের মধ্যে।

শারীরিক মাপজোক: ন্যূনতম উচ্চতা দরকার ১৫৭ সেন্টিমিটার। সেই সঙ্গে অন্তত ৫ সেমি ফোলানোর ক্ষমতা সম্পন্ন সুগঠিত বুকের ছাতি ও ওজন থাকতে হবে। ভাঙা হাঁটু, চ্যাটালো পায়ের পাতা ইত্যাদি কোনোরকম শারীরিক বা মানসিক ত্রুটি-বিকৃতি বা এই কাজের পক্ষে অসুবিধাজনক কোনো রোগব্যাধি থাকলে আবেদন করা যাবে না। চশমা ছাড়া দৃষ্টিশক্তি হতে হবে ভালো চোখে ৬/১২ এবং খারাপ চোখে ৬/১২ চশমা থাকলে ভালো চোখে ৬/৯ খারাপ চোখে ৬/১২।

খেধুলা, সাঁতার ও পাঠ্যাতিরিক্ত ক্রিয়াকলাপে দক্ষতা থাকা বাঞ্ছনীয়। শরীরে কোনো স্থায়ী ট্যাটু থাকলে সেবিষয়েও কিছু বিধিনিষেধ আছে, নিচের সাইটে জানা যাবে।

নির্বাচন পদ্ধতি: প্রার্থী বাছাই করা হবে লিখিত পরীক্ষা, শারীরিক সক্ষমতার পরীক্ষা এবং ডাক্তারি পরীক্ষার মাধ্যমে। লিখিত পরীক্ষা হবে হিন্দি এবং ইংরাজিতে, আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে, অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করা যাবে জানুয়ারির শেষে। প্রশ্ন হবে অবজেক্টিভ টাইপের, নেগেটিভ মার্কিং থাকবে ০.২৫ হারে। ইংরাজি, বিজ্ঞান, অঙ্ক এবং সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন হবে। প্রশ্ন থাকবে উচ্চমাধ্যমিক মানের। ১০০ প্রশ্ন, ১০০ নম্বর, সময় ১ ঘণ্টা। পরীক্ষার জন্য দুটি কেন্দ্র বাছতে হবে। পরীক্ষার সিলেবাস পাওয়া যাবে নিচের ওয়েবসাইটে। যে-কোনো দুটি পরীক্ষাকেন্দ্র বাছতে হবে, সঙ্গে দেওয়া তালিকা থেকে। লিখিত পরীক্ষার ফল বেরোবে পরীক্ষার ৩০ দিন পর। মোটামুট ১৫০০ জনকে সফল বলে ঘোষণা করা হবে তাঁদের শারীরিক সক্ষমতার পরীক্ষা নেওয়া হবে। তাতে ১.৬ কিমি দৌড়তে হবে ৭ মিনিটে। ২০টা স্কোয়াট-আপ (ওঠ-বস) এবং ১০টা পুশ-আপ দিতে হবে। সব প্রার্থীদের ডাক্তারি পরীক্ষা হবে নেভির মেডিক্যাল বিভাগের নিয়মানুযায়ী। সিলেবাসের ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পাবেন  www.joinindiannavy.gov.in ওয়েবসাইটে। চূড়ান্ত ফল বেরোবে ২০ জুন।

ট্রেনিং: প্রশিক্ষণ শুরু হবে আগস্ট ২০১৯-এ। প্রথমে ৯ সপ্তাহের বেসিক ট্রেনিং হবে আইএনএস চিল্কাতে, তারপর পেশাগত ট্রেনিং নেভির বিভিন্ন প্রশিক্ষণকেন্দ্রে। বইপত্র, জামাকাপড়, থাকা-খাওয়া ফ্রি। ট্রেনিং চলাকালীন বিয়ে করা চলবে না। নিয়োগ হবে প্রাথমিকভাবে ২০ বছরের জন্য।

(২) সেলর সিনিয়র সেকেন্ডারি রিক্রুটস (এসএসআর)-এর স্টাইপেন্ড ও বেতন আর্টিফিশার অ্যাপ্রেন্টিসের মতো, গ্রুপ পে বাদে।

বয়সসীমা: সাধারণ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে জন্ম তারিখ হতে হবে ১  আগস্ট ১৯৯৮ থেকে ৩১ জুলাই, ২০০২ তারিখের মধ্যে।

শিক্ষাগত যোগ্যতা, শারীরিক মাপজোক ও প্রার্থী বাছাই পরীক্ষা ইত্যদি ওপরের মতোই। তবে এক্ষেত্রে লিখিত পরীক্ষা থেকে সফল বলে ঘোষণা করা হবে ১০০০০ প্রার্থীকে। দৃষ্টিশক্তি হতে হবে চশমা ছাড়া ভালো চোখে ৬/৬ এবং খারাপ চোখে ৬/৯,  চশমা থাকলে ভালো চোখে ৬/৬, খারাপ চোখে ৬/৬।

ট্রেনিং: প্রশিক্ষণ শুরু হবে ২০১৯-এর আগস্টে। ট্রেনিং চলবে ২২ সপ্তাহ, আইএনএস চিল্কাতে। তারপর পেশাগত ট্রেনিং নেভির বিভিন্ন প্রশিক্ষণকেন্দ্রে। বইপত্র, জামাকাপড়, থাকা-খাওয়া ফ্রি। ট্রেনিং চলাকালীন বিয়ে করা চলবে না।

দুই পদেরই আবেদনের পদ্ধতি, পরীক্ষার ফি: দুই পদের জন্যই পরীক্ষার ফি ২০৫ টাকা করে। দিতে হবে নেট ব্যাঙ্কিং বা ভিসা/মাস্টার/রুপে ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড/ইউপিআইয়ের মাধ্যমে, তপশিলিদের কোনো ফি দিতে হবে না যদিও তাঁদের জন্য কোনো পদসংরক্ষণ নেই।

আবেদনের পদ্ধতি: দুই ক্ষেত্রেই আবেদন করতে হবে অনলাইনে। ১৪ ডিসেম্বর থেকে ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে www.joinindiannavy.gov.in  ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। ওয়েবসাইটে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে নিজের বৈধ ইমেল আইডি ও ফোন নম্বর দিয়ে, তারপর ওই ইমেল আইডি দিয়ে সাইটে ঢুকে পদ বেছে আবেদন করা যাবে। আগে রেজিস্ট্রেশন করা থাকলে নতুন করে রেজিস্ট্রেশন দরকার হবে না, সরাসরি ইমেল আইডির সাহায্যে লগইন করতে হবে। হোম পেজে অপরচুনিটিজ বাটনে ক্লিক করতে হবে, তারপর চাকরি বেছে নিয়ে অ্যাপ্লাই করতে হবে। নিজের সাম্প্রতিক ফটো (নীল ব্যাকগ্রাউন্ডে তোলা) স্ক্যান করে রাখতে হবে ৬০-১০০ কেবির মধ্যে। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক প্রমাণপত্রও নেচের ওয়েবসাইটে বলা নির্দেশ মতো স্ক্যান করে রাখতে হবে আপলোড করার জন্য। ফর্ম ফিলাপ হয়ে গেলে ভালো করে মিলিয়ে নেবার পর তবেই সাবমিট বাটনে ক্লিক করবেন কারণ সাবমিট করা হয়ে গেলে আর কোনো বদল করা যাবে না।

দেশের যে-কোনো কমন সার্ভিস সেন্টার থেকে ৬০ টাকা+সার্ভিস ট্যাক্স দিয়ে দরখাস্ত আপলোড করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *