fbpx

পঞ্চম শ্রেণি যুক্ত হতে পারে প্রাইমারিতে, কলেজের পর স্কুলে ইন্টার্ন-এর সুযোগ

আজ সোমবার ১৪ জানুয়ারি নবান্নে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা  সচিব সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাধ্যক্ষ্, স্কুল-কলেজের প্রতিনিধি, শিক্ষা পর্ষদ, বোর্ডের সভাপতিদের নিয়ে  এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৈঠকের আলোচনায় নতুন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণ এবং শিক্ষা ক্ষেত্রে মানোন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষক পদে নিয়োগের বিষয়টি নিয়েও আলোচনা হয়। কিছুদিন আগেই দাড়িভিটা কাণ্ড শিক্ষা ক্ষেত্রে শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি বড়ো প্রশ্ন চিহ্ন তুলে দিয়েছিল।  সব জায়গায় শিক্ষকের সংখ্যার ভারসাম্য বজায় নেই।  জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের স্কুলগুলিতে শিক্ষকের অভাব রয়েছে , তাই শিক্ষকের ভারসাম্য আনার কথা এদিন স্পষ্ট করে মুখ্যমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

শিক্ষকের সমস্যা সবথেকে বেশি প্রাথমিক স্তরেই রয়েছে। সেই কারণেই প্রাথমিক স্তরের সঙ্গে পঞ্চম শ্রেণিকে যুক্ত করা হবে কিনা সে ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা চলছে বলে জানান তিনি। উল্লেখ্য, বর্তমানে পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত এখন আপার প্রাইমারি স্তর হিসাবে রয়েছে। যদিও বেশিরভাগ রাজ্যেই প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত প্রাইমারি স্তর হিসাবে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া হয়ে থাকে।

অন্যদিকে, শিক্ষক ভারসাম্য বজায় রাখতে আরেকটি নতুন ভাবনার কথা জানান তিনি।  কলেজ পাশ করার পর ছাত্র-ছাত্রীরা স্কুলে গিয়ে শিক্ষানবিশ বা ইন্টার্ন হিসাবে কাজ করার সুযোগ পাবেন। ২ বছরের জন্য ইন্টার্নশিপ করতে পারবেন। প্রাইমারি স্তরে ও মাধ্যমিক স্তরে ২০০০ টাকা ও ২৫০০ টাকা করে ভাতাও দেওয়া হবে এই ইন্টার্নশিপের সময়। দুই  বছরের ইন্টার্নশিপ করার পর একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হবে এবং পরবর্তীকালে তাঁদের শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়াতেই অনেকটা সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে শিক্ষক নিয়োগে বিলম্ব হচ্ছে, অসংখ্য পরীক্ষার্থী শিক্ষক নিয়োগের অপেক্ষায় রয়েছেন। শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত করার ব্যাপারে আলাদা করে কিছু এদিনের মিটিংয়ের পর ঘোষণা হয়নি।

 

 

SSC, Schhol Service, Primary Education

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *