fbpx

রাজ্যে সমবায় সংস্থায় ১৮ অ্যাসিঃ, ক্লার্ক, সুপারভাইজার

ওয়েস্ট বেঙ্গল কো-অপারেটিভ সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে নিচের সমবায় সংস্থাগুলিতে ১৮ জন ফিল্ড সুপারভাইজার, অ্যাসিস্ট্যান্ট ও ক্লার্ক নিয়োগ করা হবে। বিজ্ঞপ্তি নম্বর: ০১/২০১৯।

শূন্যপদ: ক্রমিক সংখ্যা ১: ফিল্ড সুপারভাইজার গ্রেড থ্রি পুরুষ (বর্ধমান কো-অপারেটিভ এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক লিমিটেড): ২ (অসংরক্ষিত)। ক্রমিক সংখ্যা ২: অ্যাসিস্ট্যান্ট গ্রেড থ্রি (দুর্গাপুর স্টিল পিপল’স কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেড): ৪ (অসংরক্ষিত ৩, তপশিলি জাতি ১)। ক্রমিক সংখ্যা ৩: সুপারভাইজার গ্রেড থ্রি (ঝাড়গ্রাম কো-অপারেটিভ এগ্রিকালচার অ্যান্ড রুরাল ডেভেলপমেন্ট ব্যাঙ্ক লিমিটেড): ১ (অসংরক্ষিত)। ক্রমিক সংখ্যা ৪: গ্রেড থ্রি ক্লার্ক (মুর্শিদাবাদ ডিস্ট্রিক্ট সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেড): ১০ (অসংরক্ষিত ৫, তপশিলি জাতি ২, তপশিলি উপজাতি ১, ওবিসি এ ১, ওবিসি বি ১)। ক্রমিক সংখ্যা ৫: অ্যাসিস্ট্যান্ট গ্রেড ওয়ান (নদিয়া ডিস্ট্রিক্ট সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাঙ্ক লিমিটেড): ১ (অসংরক্ষিত ইসি)।

যোগ্যতা: যে-কোনো শাখায় স্নাতক সঙ্গে বেসিক কম্পিউটার নলেজ (অন্তত এমএস অফিস এবং ইন্টারনেট)।

বয়সসীমা: ১ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখের হিসেবে বয়স হতে হবে ১৮-৪০ বছরের মধ্যে। সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: লেখা পরীক্ষা ও ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে প্রার্থী বাছাই করা হবে। লেখা পরীক্ষায় পেপার ওয়ানে থাকবে কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউড, রিজনিং, জেনারেল অ্যাওয়্যারনেস। ১০০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। নেগেটিভ মার্কিং থাকবে। পেপার টুতে ইংরেজি ও বাংলা ভাষার উপর সাবজেক্টিভ টাইপের প্রশ্ন থাকবে। ১০০ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ১ ঘণ্টা ৩০ মিনিট। লেখা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে ইন্টারভিউ। পরীক্ষাকেন্দ্র হবে কলকাতা ও হাওড়ায়।

পরীক্ষার ফি: ২০০ টাকা (পরীক্ষার ফি ১৬০ টাকা+ প্রসেসিং ফি ৪০ টাকা)। তপশিলি জাতি/ উপজাতি প্রার্থীদের পরীক্ষার ফি দিতে হবে না, শুধুমাত্র প্রসেসিং ফি বাবদ ৪০ টাকা দিতে হবে। ডেবিট কার্ড/ ক্রেডিট কার্ড/ নেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে ফি দেওয়া যাবে।

আবেদনের পদ্ধতি: www.webcsc.org ওয়েবসাইটে গিয়ে অনলাইন আবেদন করা যাবে। বৈধ ইমেল আইডি ও মোবাইল নম্বর থাকতে হবে। একজন প্রার্থী একের বেশি পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন, অনলাইন আবেদনের সময় পদ পছন্দ জানাতে হবে। অনলাইন আবেদন করার আগে ছবি, স্বাক্ষর ও যাবতীয় প্রমাণপত্রাদি স্ক্যান করে রাখতে হবে, অনলাইন আবেদনের সময় তা নির্দিষ্ট স্থানে আপলোড করতে হবে। যে সমস্ত নথি স্ক্যান করতে হবে সেগুলি হল– ১) পাসপোর্ট মাপের ছবি (৫০ কেবির মধ্যে)। ২) স্বাক্ষর (৫০ কেবির মধ্যে)। ৩) বাঁ হাতের বুড়ো আঙুলের ছাপ (৫০ কেবির মধ্যে)। ৪) মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড/ সার্টিফিকেট (২ কেবির মধ্যে)। ৫) কাস্ট সার্টিফিকেট (যাঁদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য) ২ কেবির মধ্যে। অনলাইন আবেদন করা যাবে ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ রাত ১১.৫৯ পর্যন্ত। অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য জানা যাবে উপরোক্ত ওয়েবাসইটে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *