fbpx

জয়েন্ট এন্ট্রান্স এগজামিনেশন (জেইই) মেইন এপ্রিল ২০১৯ পরীক্ষার অনলাইন আবেদন

সারা দেশের সমস্ত এনআইটি (ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি), আইআইআইটি (ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ইনফর্মেশন টেকনোলজি) ও সিএফটিআই (সেন্ট্রাল ফান্ডেড টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট)-এর ডিগ্রি কোর্স (বিই/বিটেক এবং আইআইটিগুলি ছাড়া অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের বিআর্ক/বি প্ল্যানিং)-এ ভর্তির জন্য জেইই মেইন এপ্রিল ২০১৯ পরীক্ষার অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে, চলবে ৭ মার্চ ২০১৯ রাত ১১-৫০ পর্যন্ত। অন্যান্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও এই পরীক্ষার স্কোরের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করে।

এবার থেকে এই পরীক্ষা পরিচালনা করছে কেন্দ্রীয় সরকারের নবগঠিত ‘ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি’ (এনটিএ)। এনটিএ-র এই পরীক্ষা ও নিট, নেট, সিম্যাট ইত্যাদি পরীক্ষাসূচি নিয়ে আমরা ইতিমধ্যে আলোচনা করেছি (http://jibikadishari.co.in/?p=7513)। বছরে ২ বার জেইই মেইন পরীক্ষা নেওয়া হবে। বছরের প্রথম পরীক্ষা হয়েছে ৬-২০ জানুয়ারি। বিভিন্ন ব্যাচে ভাগ করে কম্পিউটার ভিত্তিক পরীক্ষা।

বছরের ২য় পরীক্ষাটি হবে আগামী ৭-২০ এপ্রিল। অনলাইন আবেদন করা যাবে ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত। অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করা যাবে ১৮ মার্চ থেকে। পরীক্ষার ফল বেরোবে পেপার-১-এর ৩০ এপ্রিল, পেপার-২-এর ১৫ মে।

পরীক্ষা পদ্ধতি: পরীক্ষা হবে দুটি পেপারে। দুই শিফটের পরীক্ষা— সকাল সাড়ে নটা-সাড়ে বারোটা ও বেলা আড়াইটা-সাড়ে পাঁচটা। একটি পেপারের পরীক্ষা দিতে পারেন কেবল বিই/বিটেক বা কেবল বিআর্ক/বিপ্ল্যানিংয়ের জন্য, অথবা দুটি পেপারই দিতে পারেন, বিই/বিটেক বা বিআর্ক/বিপ্ল্যানিং সবেই ভর্তির সুযোগ নিতে চাইলে।

পেপার ওয়ান (বিই/বিটেক), কম্পিউটার বেসড টেস্ট হবে। অবজেক্টিভ মাল্টিপল চয়েস টাইপ—ম্যাথমেটিক্স (৩০ প্রশ্ন, ১২০ নম্বর), ফিজিক্স (৩০ প্রশ্ন, ১২০ নম্বর) ও কেমিস্ট্রি (৩০ প্রশ্ন, ১২০ নম্বর) বিষয়ে, প্রতিটিতে সমান গুরুত্ব। প্রতি প্রশ্নে ৪ নম্বর, প্রতি ভুলের জন্য খোয়া যাবে ১ নম্বর। পেপার টু (বিআর্ক/বিপ্ল্যানিং)-এর মধ্যে পার্ট ওয়ান ম্যাথমেটিক্স (৩০ প্রশ্ন, ১২০ নম্বর) ও পার্ট টু অ্যাপ্টিটিউড টেস্ট (৫০ প্রশ্ন, ২০০ নম্বর) হবে কম্পিউটার বেসড অবজেক্টিভ মাল্টিপল চয়েস টাইপ, আর পার্ট থ্রি ড্রয়িং টেস্ট (১ প্রশ্ন এ, বি ও সি, ৭০ নম্বর) হবে অফলাইন মোডে কাগজে-কলমে।

যোগ্যতা: মোট অন্তত ৫টি বিষয় নিয়ে পড়ে দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় মোট অন্তত ৭৫% (তপশিলিদের ক্ষেত্রে ৬৫%) নম্বর বা বোর্ডের ২০ পার্সেন্টাইলের মধ্যে যাঁদের অবস্থান তাঁরা আবশ্যিক বিষয় হিসাবে ম্যাথমেটিক্স ও ফিজিক্স এবং সঙ্গে কেমিস্ট্রি/ বায়োটেকনোলজি/ বায়োলজি/ ৩ বছরের ডিপ্লোমা/ টেকনিক্যাল/ ভোকেশনাল (৫ বিষয়ের— কেবল আআইটিতে ভর্তির জন্য) নিয়ে পড়ে থাকলে এনআইট, আইআইটি, সিএফটিআই, এসএফআই রাজ্য ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজগুলির বিই/বিটেকের জন্য এবং ফিজিক্স-কেমিস্ট্রি-ম্যাথমেটিক্স নিয়ে পড়ে থাকলে বিআর্ক এবং ম্যাথমেটিক্স থাকলে বিপ্ল্যানিং কোর্সের জন্য এই পরীক্ষা দিতে পারেন। অন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানও এই পরীক্ষার স্কোরের ভত্তিতে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করে।

কোনো বয়সসীমা নেই, ২০১৭ বা ২০১৮-তে যাঁরা উচ্চমাধ্যমিক পাশ করেছেন বা ২০১৯ সালে উচ্চমাধ্যমিক দেবেন তাঁরা এই পরীক্ষায় বসতে পারেন। যাঁরা গত জানুয়ারির জেইই (মেইন)-এ বসেছিলেন তাঁরাও এই পরীক্ষায় বসতে পারেন, তাঁদের অপেক্ষাকৃত ভালো ফলটিই মেধাতালিকার জন্য বিবেচিত হবে।

আবেদনের ফি: যে-কোনো একটা পেপারের পরীক্ষা দিতে চাইলে ৫০০ টাকা (মহিলা, তপশিলি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও রূপান্তরকামীদের ক্ষেত্রে ২৫০ টাকা)। দুই পেপারেরই পরীক্ষা দিতে চাইলে ৯০০ টাকা (মহিলা, তপশিলি, শারীরিক প্রতিবন্ধী ও রূপান্তরকামীদের ক্ষেত্রে ৪৫০ টাকা)। ব্যাঙ্কের সার্ভিস চার্জ, প্রসেসিং ফি ইত্যাদিও যোগ হবে। ফি দেওয়া যাবে ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, নেট ব্যাঙ্কিং ও ই-চালানের মাধ্যমে।

আবেদন পদ্ধতি: আবেদন করতে হবে অনলাইনে, ৭ মার্চের মধ্যে। তার জন্যে নিজের সাম্প্রতিক পাসপোর্ট মাপের ফটো ও স্বাভাবিক সই স্ক্যান করে রাখতে হবে। ছবি রঙিন বা সাদা-কালো হতে পারে, কিন্তু তা যেন স্পষ্ট হয়। টুপি বা রোদচশমা পরা চলবে না, সাধারণ চশমা পরা চলবে। ছবি একটা সাদা কাগজে সেঁটে তার নিচে ব্লক লেটারে নিজের নাম ও ছবি তোলার তারিখ লিখে রাখতে হবে ওয়েবসাইটে দেওয়া নমুনা অনুযায়ী, তারপর সেই পুরোটার স্ক্যান করতে হবে। অনলাইন আবেদনে নিজের ও বাবা-মায়ের নামের বানান যেন উচ্চমাধ্যমিকের মতো হয়, শ্রী/কর্নেল/ডঃ ইত্যাদি কিছু লিখবেন না। আবেদনের শেষে সেই সাবমিট করা আবেদনপত্রের প্রিন্ট-আউট নিয়ে রাখবেন, কোথাও কিছু পাঠাতে হবে না। সারা দেশে দেড়লাখের ওপর কমন সার্ভিসিং সেন্টার আছে, আবেদন করার বিভিন্ন ব্যাপারে তাদের সাহায্য নিতে পারেন নির্ধারিত হারে। সেন্টারগুলির ঠিকানা জানতে পারবেন এই লিঙ্কে: http://gis.csc.gov.in/locator/csc.aspx ও পরিষেবার বিভিন্ন মূল্য জানতে পারবেন এনটিএর ওয়েবসাইটে।

www.nta.ac.in এবং www.jeemain.nic.in ওয়েবসাইট থেকে অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্য জানা যাবে।

জেইই মেইন এপ্রিল ২০১৯-এর বুলেটিন পাবেন এই লিঙ্কে: https://jeemain.nic.in/WebInfo/Handler/FileHandler.ashx?i=File&ii=14&iii=Y

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *