প্রকাশিত হল জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফল

507
0

পরীক্ষার এক মাসের মধ্যেই প্রকাশ হল জয়েন্টের ফলাফল। এবার মেধা তালিকায় প্রথম দশে ৯ জনই ছাত্র। এবার প্রথম হয়েছেন অভিনন্দন বসু। তিনি সাউথ পয়েন্টের ছাত্র। দ্বিতীয় স্থানে আছেন হরিয়ানা বিদ্যামন্দিরের ছাত্র দিদিব্য রায়। তৃতীয় স্থানে আছে অর্চিষ্মান সাহা। তিনি ডিপিএস রুবি পার্কের ছাত্র। দশম স্থানে ও মহিলাদের মধ্যে প্রথম আয়ুষী বিদ্যান্ত।

গতবছরের থেকেও কম সময়ে হল এবারের ফলপ্রকাশ। এবার পরীক্ষার ৩১ দিনের মধ্যেই হল ফল জানতে পারলেন পড়ুয়ারা। এবার মোট নথিবদ্ধ পরীক্ষার্থী ছিলেন ১ লক্ষ ২৫ হাজার ৭৫ জন। তাঁদের মধ্যে ১ লক্ষ ৫ হাজার ৯৭৪ জন পরীক্ষায় বসেন। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে সফল হয়েছেন ১ লক্ষ ৫ হাজার ৮১ জন। ফার্মাসিতে সফল ১ লক্ষ ৪ হাজার ৬৩০ জন। পরিসংখ্যান অনুযায়ী ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে সাফল্যের হার বেড়েছে ৪.৬ শতাংশ। ফার্মাসিতে ৪.৪ শতাংশ বেড়েছে সাফল্যের হার। রাজ্য অনুযায়ী দেখলে পশ্চিমবঙ্গ থেকে ৬৪ শতাংশ পরীক্ষার্থী সফল হয়েছেন। ওয়েস্ট বেঙ্গল হায়ার সেকেন্ডারি কাউন্সিলের সফল পরীক্ষার্থী ৪৭ শতাংশ, সিবিএসসি থেকে ২৮ শতাংশ, বিহার বোর্ড থেকে ১৩ শতাংশ সফল। এ অন্যান্য বোর্ডের সফল পরীক্ষার্থীরাও আছেন।

পরবর্তী জয়েন্টের দিনও আজ ঘোষণা করে দেওয়া হল। সম্ভাব্য তারিখ ২১ এপ্রিল ২০১৯, রবিবার। এ বছর কোনও প্রশ্ন বাতিল করা হয়নি। গতবছরও তা করা হয়েছিল। এছাড়া ফলের স্বচ্ছতার জন্য একাধিক পদক্ষেপ করা হয়েছে।  এবার যাঁদের মনে হচ্ছে সঠিক ফলাফল হয়নি, সংশয় আছে, তাঁরা বোর্ডের অফিসে এসে ৫০০ টাকা ব্যাংক ড্রাফট জমা দিয়ে ক্যালকুলেশন শিট দেখতে পাবেন। গতবারের মতো এবারও মক কাউন্সেলিং হবে ৩৩টি সেন্টারে। তার দিন ধার্য হয়েছে ২৮ মে থেকে ২ জুন পর্যন্ত।

এবারের জয়েন্টের সেরা ১০:

১. অভিনন্দন বসু, সাউথ পয়েন্ট স্কুল৷

২. দীদিপ্য রায়, হরিয়ানা৷

৩.অর্চিষ্মান সাহা, ডিপিএস রুবি৷

৪.শুভম অগ্রবাল, সেন্ট টমাস বয়েজ স্কুল৷

৫. দিব্যজ্যোতি কর, এপিজে স্কুল৷

৬. নবম দিয়ানি, শ্রী শ্রী অ্যাকাডেমি৷

৭. ঋত্বিক গঙ্গোপাধ্যায়, হেমশিলা মডেল স্কুল দুর্গাপুর৷

৮. রণজয় মিদ্যা, অ্যাডামাস ইন্টারন্যাশনাল৷

৯. অভিষেক শ্রীবাস্তব, রাঁচি সেন্ট জেভিয়ার্স স্কুল৷

১০. আয়ুষী বিদ্যান্ত, বিশাখাপত্তনম৷

জয়েণ্ট এগজ্যামের র‍্যাঙ্ক জানার জন্য লিঙ্ক: www.wbjeeb.inর‍্যাঙ্ক কার্ড ডাউনলোড করা যাবে এই লিঙ্ক থেকে: www.wbjeeb.nic.in