২০০০ বন সহায়ক: পরীক্ষার জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন-উত্তর

8637
0

রাজ্যে ২০০০ জন বন সহায়ক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে। জীবিকা দিশারীর মূল খবরেই প্রাথী বাছাই কীভাবে হবে সে ব্যাপারে জানানো হয়েছে। বাংলা ভাষা পড়তে জানা থাকলে তার পরীক্ষায় বরাদ্দ ৩০ নম্বর, বাংলা ভাষা লিখতে জানা থাকলে তার জন্য ৩০ নম্বর। বেশিরভাগ প্রার্থী এই ৬০ নম্বরের মধ্যে ভালো নম্বর তোলার সুবিধা নিয়ে প্রতিযোগিতায় নামবে। এরপর রয়েছে ২০ নম্বরের জেনারেল নলেজ টেস্ট। পশ্চিমবঙ্গের বন বিভাগ সংক্রান্ত কিছু জেনারেল নলেজ আপনাদের সামনে তুলে ধরা হল:

১) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ভৌগোলিক ক্ষেত্রের ১৮.৯৬% রয়েছে বনাঞ্চল বা অরণ্য সমৃদ্ধ জায়গা। সারা দেশের গড় অরণ্য সমৃদ্ধ জায়গা ২৩%। এর মধ্যে ৪% রয়েছে প্রটেক্টেড এরিয়া বা বন্য প্রাণী/সম্পদ সংরক্ষিত জায়গা।

২) পশ্চিমবঙ্গে মোট ৬টি ন্যাশনাল পার্ক এবং ১৫টি ওয়াইল্ড লাইফ স্যাংচুয়ারি রয়েছে। রয়েছে ২টি বাঘ সংরক্ষণ অরণ্য (বক্সা ও সুন্দরবন)

৩) পশ্চিমবঙ্গের ৬টি ন্যাশনাল পার্ক হল: গোরুমারা ন্যাশনাল পার্ক, জলদাপাড়া ন্যাশনাল পার্ক, নেওরা ভ্যালি ন্যাশনাল পার্ক, সুন্দরবন ন্যাশনাল পার্ক, বক্সা ওয়াইল্ড লাইফ এরিয়া, সিঙ্গালিলা  ন্যাশনাল পার্ক।

৪) পশ্চিমবঙ্গের সবথেকে বড় ন্যাশনাল পার্ক হল সুন্দরবন ন্যাশনাল পার্ক। এটি প্রায় ১৩৩০ বর্গ কিমি জায়গা জুড়ে অবস্থিত।

৫) সুন্দরবন ন্যাশনাল পার্ককে ১৯৮৪ সালে ইউনেস্কো “ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ” সাইটের স্বীকৃতি দেয়।

৬) পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

৭) পশ্চিমবঙ্গের কার্শিয়াং জেলায় ডাউহিলে রয়েছে “ওয়েস্ট বেঙ্গল ফরেস্ট স্কুল” যেটি ১৯০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।

৮) ১৯৮৪ সালে ঝাড়গ্রামে তৈরি হয়েছে ফরেস্ট গার্ড ট্রেনিং সেন্টার।

৯) পশ্চিমবঙ্গের সবথেকে বড় ওয়াইল্ড লাইফ স্যাংচুয়ারি হল সজনেখালি স্যাংচুয়ারি।

১০) কলকাতার আলিপুর ছাড়াও দার্জিলিং-এ রয়েছে পদ্মজা নাইডু জুলজিক্যাল পার্ক।

 

রাজ্যে ২০০০ বন সহায়ক নিয়োগের বিষয়ে আমাদের বিস্তারিত খবরের লিঙ্ক

 

wb forest, wb forest exam