চন্দ্রযান-৩

362
0
2nd September Current Affairs

মহাকাশে টানা একমাস ন’দিনের যাত্রা শেষ করে ভারতীয় মহাকাশযান চন্দ্রযান ৩ চাঁদের বুকে সফল অবতরণ হয়েছে ২৩ আগস্ট সন্ধ্যা ৬টা ৪ মিনিটে।

গত ১৪ জুলাই অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটায় সতীশ ধাওয়ান স্পেস সেন্টার থেকে চন্দ্রযান ৩-এর যাত্রা শুরু হয়।

এই অভিযানের একটি প্রধান বৈশিষ্ট্য হল এটি চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করেছে,

যেখানে সম্প্রতি জলের অস্তিত্ব প্রমাণিত হওয়ার পর সারা পৃথিবী জুড়ে বিজ্ঞানীদের আগ্রহ ও মনোযোগ এখন চন্দ্রপৃষ্ঠের ওই অঞ্চলটিতেই।

চাঁদের দক্ষিণ মেরু অঞ্চলে অবতরণের দিক থেকে ভারতই প্রথম দেশ। বর্তমানে চাঁদের মাটিতেই রয়েছে বারতের চন্দ্রযান ৩।

ল্যান্ডার বিক্রম থেকে সফলভাবে চাঁদের মাটিতে নেমেছে রোভার প্রজ্ঞান। এই প্রজ্ঞানই চাঁদের বুকে চলাফেরা করে তথ্য সংগ্রহ করছে।

সেকেন্ডে ১ সেন্টিমিটার গতিতে প্রজ্ঞান চলছে। প্রজ্ঞান মূলত তথ্য সংগ্রহ করে ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশন (ইসরো)-এ পাঠাতে থাকছে।

সফল ল্যান্ডিংয়ের মাধ্যমে বিশ্বের চারটি দেশের তালিকায় এখন নাম যুক্ত হয়েছে ভারতেরও।

ঐতিহাসিক সাফল্যের মধ্যে দিয়ে বিশ্বের চতপর্থ দেশ হিসেবে ভারতের চন্দ্রযান চাঁদের মাটি ছুঁল।

১৯৬৯ সালে প্রথম সোভিয়েত ইউনিয়নের লুনা ১৭ চাঁদের মাটিতে অবতরণ করে। লুনার রোভিং ভিকল ছিল একটি ব্যাটারি চালিত চার চাকার রোভার যা ১৯৭১

এবং ১৯৭২ সালে আমেরিকান অ্যাপোলা প্রোগ্রামের (অ্যাপোলো ১৫, ১৬, ১৭) সময় চাঁদে ব্যবহার হয়েছিল।

ইউটু হল একটি চাইনিজ চন্দ্র রোভার যা ২০১৩ সালে চাঁদে অবতরণ করে। এটি চিনের প্রথম চন্দ্রযান যা চাইনা ন্যাশনাল স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন দ্বারা পরিচালিত হয়। Chandrayaan 3