দেশের এগারো রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে ৬৪৭ স্পেশ্যালিস্ট অফিসার নিয়োগ

1881
0
IBPS, IBPS SO

দেশের ১১টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে স্কেল-ওয়ান স্তরের ৬৪৭ জন স্পেশ্যালিস্ট অফিসার (আইটি অফিসার, এগ্রিকালচারাল ফিল্ড অফিসার, রাজভাষা অধিকারী, ল অফিসার, এইচআর/পার্সোনেল অফিসার ও মার্কেটিং অফিসার) নিয়োগের জন্য আইবিপিএসের কমন রিক্রুটমেন্ট প্রসেস (সিআরপি এসপিএল-টেন)-এর লিখিত পরীক্ষা হবে আগামী ডিসেম্বর/জানুয়ারি মাসে। শূন্যপদের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে, কারণ সব ব্যাঙ্কের শূন্যপদের হিসাব এখনও পাওয়া যায়নি। শূন্যপদ সাধারণত হাজারের বেশি হয়ে থাকে। এই পরীক্ষায় সফল হলে দেশের ১১টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে ওই পদগুলিতে নিয়োগ পাওয়ার প্রাথমিক যোগ্যতা অর্জন করতে পারবেন। এরপর সফল প্রার্থীদের ইন্টারভিউ ও পদবণ্টনও হবে আইবিপিএস এবং সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কগুলির যৌথ আয়োজনে, ফলে পরে আর কোথাও এই ব্যাঙ্কগুলির বিজ্ঞাপন বেরোবে না, আলাদা করে আবেদনও করতে হবে না। এই কমন রিক্রুটমেন্ট প্রসেস-এর জন্য অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করা যাবে আগামী ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। প্যানেলের বৈধতা থাকবে ৩১ মার্চ ২০২২ পর্যন্ত। নিচের যোগ্যতার যে-কোনো ভারতীয়রা আবেদন করতে পারবেন।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: পোস্ট কোড ১: আইটি অফিসার (স্কেল ওয়ান)— কম্পিউটার সায়েন্স/ কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন/ ইনফরমেশন টেকনোলজি/ ইলেক্ট্রনিক্স/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশনে চার বছরের ইঞ্জিনিয়ারিং বা টেকনোলজি ডিগ্রি অথবা ইলেক্ট্রনিক্স/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশন/ কম্পিউটার সায়েন্স/ ইনফরমেশন টেকনোলজি/ কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি অথবা যে-কোনো বিষয়ে গ্র্যাজুয়েট সঙ্গে ডোয়েকের বি-লেভেল পাশ।

পোস্ট কোড ২: এগ্রিকালচারাল ফিল্ড অফিসার (স্কেল ওয়ান)— এগ্রিকালচার/ হর্টিকালচার/ অ্যানিমাল হাজব্যান্ড্রি/ ভেটেরিনারি সায়েন্স/ ডেয়ারি সায়েন্স/ এগ্রিকালচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং/ ফিশারি সায়েন্স/ পিসিকালচার/ এগ্রি মার্কেটিং অ্যান্ড কো-অপারেশন/ কো-অপারেশন অ্যান্ড ব্যাঙ্কিং/ অ্যাগ্রো ফরেস্ট্রি/ ফরেস্ট্রি/ এগ্রিকালচারাল বায়োটেকনোলজি/ ফুড সায়েন্স/ এগ্রিকালচার বিজনেস ম্যানেজমেন্ট/ ফুড টেকনোলজি/ ডেয়ারি টেকনোলজি/ সেরিকালচারে চার বছরের ডিগ্রি।

পোস্ট কোড ৩: রাজভাষা অধিকারী (স্কেল ওয়ান)— হিন্দিতে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি সঙ্গে স্নাতক স্তরে ইংরেজি একটি বিষয় হিসেবে থাকতে হবে অথবা সংস্কৃতে পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি সঙ্গে স্নাতক স্তরে ইংরেজি এবং হিন্দি বিষয় হিসেবে থাকতে হবে।

পোস্ট কোড ৪: ল অফিসার (স্কেল ওয়ান)— ল-তে ব্যাচেলর ডিগ্রি (এলএলবি) এবং বার কাউন্সিলে আইনজীবী হিসেবে নথিভুক্ত থাকতে হবে।

পোস্ট কোড ৫: এইচআর/পার্সোনেল অফিসার (স্কেল ওয়ান)— গ্র্যাজুয়েট সঙ্গে পার্সোনেল ম্যানেজমেন্ট/ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিলেশন/ এইচআর/ এইচআরডি/ সোশ্যাল ওয়ার্ক/ লেবার ল-তে ২ বছরের পূর্ণ সময়ের পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রি বা ২ বছরের পূর্ণ সময়ের পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিপ্লোমা।

পোস্ট কোড ৬: মার্কেটিং অফিসার (স্কেল ওয়ান)— গ্র্যাজুয়েট সঙ্গে পূর্ণ সময়ের এমএমএস (মার্কেটিং)/ এমবিএ (মার্কেটিং)/ মার্কেটিংয়ে স্পেশ্যালাইজেশন সহ দু বছরের পূর্ণ সময়ের পিজিডিবিএ/পিজিডিবিএম/পিজিপিএম/পিজিডিএম।

সবক্ষেত্রেই সমস্ত শিক্ষাগত যোগ্যতা ভারত সরকার বা সরকারি নিয়ন্ত্রক কোনো সংস্থা স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয়/ ইনস্টিটিউট/ বোর্ড থেকে অর্জন করে থাকতে হবে।

এইচআর ও মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্রে দ্বৈত স্পেশ্যালাইজেশন থাকলে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে এবং মেজর/মাইনর হলে মেজর হিসাবে হতে হবে। পিজি ডিগ্রি (এমবিএ/এমএমএস)/পিজি ডিপ্লোমাধারীদের ক্ষেত্রে দুয়ের বেশি স্পেশ্যালাইজেশন থাকলে আবেদন করা যাবে না। সব শিক্ষাগত যোগ্যতা সম্পূর্ণ হতে হবে ২৩ নভেম্বর ২০২০ তারিখের মধ্যে। আইটি অফিসার স্কেল ওয়ান বাদে অন্যান্য পদের ক্ষেত্রে কম্পিউটার অপারেশন বা ল্যাঙ্গুয়েজে সার্টিফিকেট/ ডিপ্লোমা/ ডিগ্রি থাকতে হবে অথবা হাই স্কুল/ কলেজ/ ইনস্টিটিউটে কম্পিউটার/ ইনফরমেশন টেকনোলজি একটি বিষয় হিসেবে থাকতে হবে। নম্বরের হিসাব করতে হবে সব বছর/সেমেস্টার ও সব বিষয়ের পরীক্ষার মোট নম্বর ও পাওয়া নম্বর ধরে। ভগ্নাংশকে সেইমতো ভগ্নাংশ হিসাবেই ধরা হবে।

বয়সসীমা: ১ নভেম্বর ২০২০ তারিখ অনুযায়ী বয়স হতে হবে ২০-৩০ বছরের মধ্যে (জন্মতারিখ ২ নভেম্বর ১৯৯০ থেকে ১ নভেম্বর ২০০০) তপশিলি, ওবিসি (নন-ক্রিমি লেয়ার), শারীরিক প্রতিবন্ধী ও প্রাক্তন সেনাকর্মী প্রার্থীরা নিয়ম অনুযায়ী বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় ছাড় পাবেন।

কোন–কোন ব্যাঙ্কে নিয়োগ:ব্যাঙ্ক অব বরোদা, ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, ব্যাঙ্ক অব মহারাষ্ট্র, কানাড়া ব্যাঙ্ক, সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক, ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্ক, পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক, পাঞ্জাব অ্যান্ড সিন্ধ ব্যাঙ্ক, ইউকো ব্যাঙ্ক, ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া।

প্রার্থী বাছাই পদ্ধতি: অনলাইন প্রিলিমিনারির সব পেপারে সফল হতে হবে। প্রিলিমিনারির সফল প্রার্থীদের মূল পর্বের পরীক্ষায় সুযোগ দেওয়া হবে, তাতেও সব পেপারে সফল হতে হবে। সফল হলে উপরোক্ত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির শূন্যপদ অনুযায়ী নির্বাচিত প্রার্থীদের ইন্টারভিউয়ে ডাকা হবে। আইবিপিএসের ব্যবস্থাপনায় সংশ্লিষ্ট রাজ্যের নোডাল ব্যাঙ্কগুলির সহযোগিতায় সদস্য ব্যাঙ্কগুলি এই গ্রুপ ডিসকাশন এবং পার্সোনাল ইন্টারভিউ পরিচালনা করবে। অর্থাৎ আইবিপিএসের লিখিত পরীক্ষায় পাশ না করলে গ্রুপ ডিসকাশন বা ইন্টারভিউতে যাওয়ার সুযোগ মিলবে না। আবার শুধু আইবিপিএসের লিখিত পরীক্ষায় পাশ করার পর গ্রুপ ডিসকাশন বা ইন্টারভিউয়েও সফল হতে হবে। মূল পর্বের পরীক্ষা ও ইন্টারভিউয়ে পাওয়া নম্বর ৮০:২০ অনুপাতে হিসাব করে চূড়ান্ত মেধাতালিকা তৈরি হবে।

পরীক্ষা পদ্ধতি: ল অফিসার ও রাজভাষা অধিকারীর ক্ষেত্রে প্রিলিমিনারি অনলাইন কমন রিটেন এগজামিনেশনে থাকবে ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ (৫০ প্রশ্ন, ২৫ নম্বর), রিজনিং (৫০ প্রশ্ন, ৫০ নম্বর), জেনারল অ্যাওয়্যারনেস ব্যাঙ্কিং ইন্ডাস্ট্রিতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে (৫০ প্রশ্ন, ৫০ নম্বর)। মোট ১৫০ প্রশ্নের ১২৫ নম্বরের পরীক্ষা, সময় ৪০ মিনিট করে মোট ১২০ মিনিট। অন্যান্য পদের ক্ষেত্রে অনলাইনও একইরকম, কেবল জেনারেল অ্যাওয়্যারনেসের বদলে থাকবে কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউড।

মূল পর্বের পরীক্ষা কেবল প্রফেশন্যাল নলেজ বিষয়ে। রাজভাষা অধিকারীদের থাকবে ৪৫টি অবজেক্টিভ টাইপের ও ২টি ডেস্ক্রিপটিভ টাইপের প্রশ্ন, সময় ৩০ মিনিট করে মোট ৬০ মিনিট। অন্যান্য পদের ক্ষেত্রে মোট ৬০ নম্বরের ৬০টি অবজেক্টিভ প্রশ্ন থাকবে, সময় ৪৫ মিনিট।

সবক্ষেত্রেই, অবজেক্টিভ পেপারে নেগেটিভ মার্কিং থাকবে, ০.২৫ হারে। ইংরেজি বাদে বাকি বিষয়ের প্রশ্ন হবে ইংরেজি ও হিন্দিতে। অনলাইন পরীক্ষা থেকে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ১০০ নম্বরের ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হবে।  http://www.ibps.inওয়েবসাইট থেকে সময়মতো ইন্টারভিউয়ের জন্য কললেটার ডাউনলোড করতে হবে। ইন্টারভিউয়ের সময় যে সমস্ত মূল নথি ও সেগুলির স্বপ্রত্যয়িত নকল সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে সেগুলি হল: ইন্টারভিউয়ের বৈধ কললেটার, অনলাইন অ্যাপ্লিকেশনের সিস্টেম জেনারেটেড বৈধ প্রিন্ট-আউট, জন্মতারিখের প্রমাণপত্র, সচিত্র পরিচয়পত্র, শিক্ষাগত যোগ্যতার মার্কশিট ও সার্টিফিকেট, কাস্ট সার্টিফিকেট (যেক্ষেত্রে প্রযোজ্য) ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক নথি।

আবেদনের ফি: আবেদনের ফি (ইন্টিমেশন চার্জ সহ) ৮৫০ টাকা। তপশিলি জাতি/ উপজাতি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের কেবল ইন্টিমেশন চার্জ দিতে হবে ১৭৫ টাকা। ডেবিট কার্ড (রুপে/ভিসা/মাস্টার কার্ড/ মায়েস্ট্রো/ক্রেডিট কার্ড, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, আইএমপিএস, ক্যাশ কার্ড, মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে আবেদনের ফি দেওয়া যাবে। ট্র্যানজ্যাকশন সফল হলে একটি ই-রিসিট পাওয়া যাবে। ই-রিসিটের প্রিন্ট-আউট নিয়ে রাখতে হবে, পরবর্তীকালে দরকার হতে পারে।

আবেদনের পদ্ধতি: একজন কেবল একটি পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর বৈধ ই-মেল আইডি থাকতে হবে। http://www.ibps.inওয়েবসাইটের হোম পেজে গিয়ে CRP Specialist Officers লিঙ্কে যেতে হবে। এরপর CLICK HERE TO APPLY ONLINE FOR CRP- Specialist Officers (CRP-SPL-X) অপশনে ক্লিক করলেই অনলাইন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম পওয়া যাবে। CLICK HERE FOR NEW REGISTRATION ক্লিক করতে হবে। আবেদন করার আগে ছবি ও স্বাক্ষর স্ক্যান করে রাখতে হবে। সম্প্রতি তোলা পাসপোর্ট মাপের রঙিন ছবি (মাপ ৪.৫ × ৩.৫ সেমি, ডাইমেনশন বাঞ্ছনীয়ত ২০০×২৩০ পিক্সেল, মাপ হতে হবে ২০-৫০ কেবির মধ্যে। ওই একই ছবির আরও কিছু কপি হাতে রাখবেন, পরে পরীক্ষার বিভিন্ন স্তরে লাগতে পারে), স্বাক্ষর সাদা কাগজে কালো কালির পেন দিয়ে হতে হবে (মাপ বাঞ্ছনীয়ত ১৪০×৬০ পিক্সেল, মাপ ১০-২০ কেবির মধ্যে)। ছবি ও স্বাক্ষর জেপিজি ও জেপেগ ফরম্যাটে স্ক্যান করতে হবে। স্ক্যানার রেজোলিউশন হতে হবে অন্তত ২০০ ডিপিআই। অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করার সময় ছবি ও স্বাক্ষর নির্দিষ্ট স্থানে আপলোড করতে হবে। আবেদনপত্র পূরণ করার পর সাবমিট বোতামে ক্লিক করতে হবে। কললেটার ডাউনলোড করতে রেজিস্ট্রেশন নম্বর ও পাসওয়ার্ডের প্রয়োজন হবে, যা রেজিস্ট্রেশনের সময় পাবেন)। কল লেটারেই পরীক্ষাকেন্দ্র, ঠিকানা, সময় বলে দেওয়া হবে। এব্যাপারে যাবতীয় খুঁটিনাটি উপরোক্ত ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া যাবে। অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করা যাবে আগামী ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত।
https://www.ibps.in/crp-specialist-officers-x/?doing_wp_cron=1604369492.3607590198516845703125 লিঙ্কে গিয়ে বিজ্ঞপ্তিটি দেখতে পাওয়া যাবে।

লাইভ টিভি দেখুন: https://chetana.tv/
বাংলার প্রথম এডুকেশনাল চ্যানেল