ভূমিকম্প ও বৃষ্টিপাতের মধ্যে যোগসূত্র অধ্যয়নকারী

250
0

ঊনবিংশ শতকের গোড়ায় হাতে গোনা যে সমস্ত মহিলা বিজ্ঞানী বিজ্ঞানের দুনিয়ায় বিশেষ অবদান রেখেছেন তাঁদের মধ্যে একজন স্টেফানিয়া মারাসিনিয়ানু (Ștefania Mărăcineanu)।

জীবনের অধিকাংশ সময়ই কেটেছিল তাঁর তেজস্ক্রিয় পদার্থ গবেষণায়। এবং  তাঁর তেজস্ক্রিয় গবেষণার উপর ভিত্তি করেই ১৯৩৫ সালে জোলিয়ট কুরি তাঁর গবেষণার সাফল্য হিসেবে বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার পেয়েছিলেন।

যদিও মারাসিনিয়ানুই প্রথম আবিষ্কার করেছিলেন তেজস্ক্রিয়তা ও বৃষ্টির মধ্যে যোগসূত্র।

এবং ভূমিকম্পের কারণ নিয়েও প্রভূত গবেষণা করে মহিলা বিজ্ঞানী হিসাবে বিজ্ঞানী মহলে কৃতিত্বের পরিচয় দিয়েছিলেন।

তাঁর জন্ম রোমানিয়ার রাজধানী বুখারেস্টে, ১৮ জুন, ১৮৮২ সালে। ১৯১০ সালে বুখারেস্ট ইউনিভার্সিটি থেকে পদার্থ ও রসায়ন বিজ্ঞানে স্নাতক হন।

তারপর বুখারেস্টের সেন্ট্রাল স্কুল ফর গার্লসে শিক্ষকতা দিয়ে জীবন শুরু করেন। রোমানিয়ার বিজ্ঞানমন্ত্রক থেকে বিশেষ সম্মানে তাঁকে ভূষিত করা হয়।

সেই বৃত্তি পেয়েই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর উচ্চশিক্ষার্থে প্যারিসে চলে আসেন। সেখানেই বিশ্ববিখ্যাত পদার্থবিদ মারি কুরির উদ্যোগে গডে ওঠা রেডিয়াম ইনস্টিটিউটে পোলেনিয়মের উপর থিসিসের কাজ শুরু করেন এবং ডক্টরেট উপাধি পান।

তিনি গবেষণায় দেখাতে চেষ্টা করেন পোলেনিয়মের কণা ধাতুর কিছু পরমাণুকে তেজস্ক্রিয় আইসোটোপে রূপান্তর করেছে কিনা।

তাঁর গবেষণায় এই বিষয়টি প্রথম তুলে ধরেন। তিনিই প্রথম আবিষ্কার করেছিলেন যে ভূমিকম্পের আগের দিনগুলিতে ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থলে তেজস্ক্রিয়তা যথেষ্ট বৃদ্ধি পায়।

ভূমিকম্প ও বৃষ্টিপাতের মধ্যে যে এক গভীর সম্পর্ক রয়েছে সে বিষয়েও গভীর অনুসন্ধান চালিয়েছেন তিনি।

১৯৩৬ সালে রোমানিয়ান অ্যাকাডেমি মারাসিনিয়ানুর কাজকে স্বীকৃতি দিয়ে রেডিয়াম ইনস্টিটিউটের পরিচালক হিসাবে গ্রহণ করেন।

অন্যদিকে তাঁর আবিষ্কারের জন্য কখনই আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি অর্জন করতে পারেননি। রেডিয়াম ইনস্ট্টিউটের প্রকৃত রাসায়নিক পরীক্ষার, যেখানে স্টেফানিয়া মারাসিনিয়ানু জীবনের পুরা সময়ই গবেষণা করেছি্লেন।

সেই রেডিয়াম ইনস্টিটিউট আজও প্যারিসের কুরি মিউজিয়াম নামে অবস্থিত। জীবনের একটা বড় সময় তিনি রেডিয়ো অ্যাকটিভিটেজের ওপর কাজ করার ফলেই নানা তেজস্ক্রিয় বিক্রিয়ার সংস্পর্শে আসার কারণেই ক্যানসার রোগে আক্রান্ত হন।

তিনি মারা যান ১৯৪৪ সালে। এই বিজ্ঞানীর ১৪০ তম জন্মদিনে গুগল ডুডল সম্মান জানাল। (Ștefania Mărăcineanu)