fbpx

আর্মিতে ৪০ ইঞ্জনিয়ার

আর্মির টেকনিক্যাল গ্র্যাজুয়েট কোর্সে (টিজিসি-১২৯) (জুলাই-২০১৯) ট্রেনিং দিয়ে ৪০ জন অফিসার নিয়োগ করবে ইন্ডিয়ান আর্মি। নিয়োগ হবে পার্মানেন্ট সার্ভিস কমিশনে। অবিবাহিত পুরুষ ইঞ্জিনিয়ার গ্র্যাজুয়েটরা নিচের মতো যোগ্যতা থাকলে আবেদন করতে পারবেন।

বেতনক্রম: শুরুতে লেফটেন্যান্ট র‍্যাঙ্কে পে স্কেল ১০ অনুযায়ী মূল বেতনক্রম ৫৬১০০-১৭৭৫০০ টাকা। পরে পদোন্নতি হলে ক্যাপ্টেন র‍্যাঙ্কে পে স্কেল ১০বি অনুযায়ী বেতনক্রম ৬১৩০০-১৯৩৯০০ টাকা। মেজর র‍্যাঙ্কে উন্নতি হলে তখন পে স্কেল ১১ অনুযায়ী বেতনক্রম ৬৯৪০০-২০৭২০০ টাকা। এইভাবে ব্যাঙ্ক অনুযায়ী বেতন ও গ্রেড পে বাড়বে। সঙ্গে অন্যান্য ভাতা ও সুযোগ সুবিধা।

শূন্যপদের বিন্যাস: (১) টেকনিক্যাল গ্র্যাজুয়েট কোর্স (টিজিসি-১২৯): (১) সিভিল (সিভিল, স্ট্রাকচারাল): ১০, (২) আর্কিটেকচার: ১, (৩) মেকানিক্যাল (মেকানিক্যাল, মেকাট্রনিক্স, মেকানিক্যাল অ্যান্ড অটোমেশন): ৪, (৪) ইলেক্ট্রিক্যাল/ ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স (ইলেক্ট্রিক্যাল, ইলেক্ট্রনক্স অ্যান্ড পাওয়ার, পাওয়ার সিস্টেম, ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স): ৫, (৫) কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং/কম্পিউটার টেক/ইনফো টেক/এমএসসি (কম্পিউটার সায়েন্স) (কম্পিউটার সায়েন্স, কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং, কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং, ইনফরমেশন সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং: ৬, (৬)ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকম/টেলিকমিউনিকেশন/ ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন/স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন (ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকম, টেলিকমিউনিকেশন, ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড কমিউনিকেশন, ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইলেক্ট্রিক্যাল কমিউনিকেশন: ৭, (৭) ইলেক্ট্রনিক্স (পাওয়ার ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ড্রাইভার্স): ২, (৮) মেটালার্জিক্যাল (মেটালার্জিক্যাল, মেটালার্জি অ্যান্ড মেটিরিয়াল টেকনোলজি, মেটালার্জি অ্যান্ড মেটিরিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং, মেটিরিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড মেটিরিয়াল সায়েন্স, মেটালার্জি অ্যান্ড এক্সপ্লোসিভস): ২, (৯)ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশন/ ইনস্ট্রুমেন্টেশন (অ্যাপ্লায়েড ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশন, ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশন, ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড ইনস্ট্রুমেন্টেশন অ্যান্ড কন্ট্রোল, ইনস্ট্রুমেন্টেশন অ্যান্ড কন্ট্রোল, ইনস্ট্রুমেন্টেশন টেকনোলজি): ২, (১০) মাইক্রো ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড মাইক্রোওয়েভ: ১।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: সংশ্লিষ্ট শাখায় ইঞ্জিনিয়ারিং গ্র্যাজুয়েট। যাঁরা চড়ান্ত বর্ষে পড়ছেন বা যাঁরা পরীক্ষা দিয়েছেন বা যাঁরা পরীক্ষা দেবেন তাঁরাও আবেদন করতে পারবেন। তবে তাঁদের ক্ষেত্রে চড়ান্ত বর্ষের সমস্ত পরীক্ষা যেমন, লিখিত পরীক্ষা, ব্যাবহারিক পরীক্ষা, ভাইভা, প্রোজেক্ট, ব্যাকলগ সবকিছু ১ জুলাই, ২০১৯ তারিখের মধ্যে শেষ করে থাকতে হবে এবং ট্রেনিং শুরুর ১২ সপ্তাহের মধ্যে রেজাল্ট দাখিল করতে হবে।

বয়সসীমা: ১ জুলাই, ২০১৯ তারিখে বয়স হতে হবে ২০ থেকে ২৭ অর্থাৎ জন্ম তারিখ ২ জুলাই, ১৯৯২ থেকে ১ জুলাই, ১৯৯৯ তারিখের মধ্যে।

শারীরিক মাপজোক: উচ্চতা থাকতে হবে ১৫৭.৫ সেমি। উত্তর-পূর্বাঞ্চলের পার্বত্য অঞ্চলের বাসিন্দারা ৫ সেমি এবং লাক্ষাদ্বীপের প্রার্থীরা ২ সেমি ছাড় পাবেন। প্রার্থীকে শারীরিক ও মানসিক ভাবে সুস্থ হতে হবে। ভালো স্বাস্থ্য থাকতে হবে। শারীরিক যোগ্যতার ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পাবেন ওয়েবসাইটে।

নির্বাচন পদ্ধতি: দরখাস্তের ভিত্তিতে বাছাই করা প্রার্থীদের ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হবে। প্রার্থী বাছাই করা হবে শিক্ষাগত যোগ্যতার ভিত্তিতে। আবেদনকারীদের মেধার উপর ভিত্তি করে কাট-অফ মার্কস ঠিক করা হবে। এলাহাবাদ, ভোপাল, ব্যাঙ্গালুরু, কাপুরথালায় সাইকোলজিস্ট, গ্রুপ টেস্টিং অফিসার ও ইন্টাভিউয়িং অফিসাররা পরীক্ষা নেবেন। পাঁচ দিন ধরে ইন্টারভিউ চলবে। সেইমতো নিজখরচে থাক- জন্য তৈরি হয়ে যেতে হবে। প্রথমে স্টেজ-ওয়ান এক দিন ও তাতে সফল হলে স্টেজ-টু চারদিন। সাইকোলজিক্যাল অ্যাপ্টিটিউডের মাধ্যমে স্টেজ-টুর প্রার্থী বাছাই হবে। এই পর্বে উত্তীর্ণ না হলে প্রার্থীকে সেই দিনই ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হবে। বাছাই করা প্রার্থীদের স্টেজ-থ্রিতে ইন্টারভিউ হবে। সেই সঙ্গে প্রার্থীদের মেডিক্যাল পরীক্ষা হবে। চড়ান্তভাবে নির্বাচিত হলে ট্রেনিং দেওয়া হবে। ট্রেনিং: ট্রেনিং চলবে ১ বছর দেরাদুনের ইন্ডিয়ান মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে।

আবেদন পদ্ধতি: আবেদন করতে হবে অনলাইনে। www.joinindianarmy.nic.in ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে। আবেদন করার আগে সমস্ত নিয়মাবলী বিস্তারিত পড়ে নেবেন। সঠিক ভাবে পূরণ করা আবেদন পত্র সাবমিট করার পর একটি রোল নম্বর পাবেন। সেটি নোট করে নেবেন। আবেদন জমা দেওয়ার পর তার দুকপি প্রিন্ট-আউট নেবেন। এককপি প্রিন্ট-আউট সঠিক জায়গায় সই করবেন ও নির্দিষ্ট জায়গায় একটি স্বপ্রত্যয়িত এককপি পাসপোর্ট মাপের ছবি সাঁটিয়ে দেবেন। দুকপি প্রিন্ট-আউট ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সমস্ত নথিপত্র ও সেগুলির স্বপ্রত্যয়িত ফটোকপি পরীক্ষা তথা ইন্টারভিউয়ের সময় নিয়ে যেতে হবে। প্রিন্ট-আউট একটি কপি প্রমাণপত্র হিসাবে প্রার্থীকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

অনলাইনে আবেদন করা যাবে ২৮ নভেম্বর, ২০১৯ বেলা ১২টা পর্যন্ত। সমস্ত ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে উপরের ওয়েবসাইটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *