fbpx

ডিস্ট্যান্স এডুকেশনে চালু হচ্ছে ইউজিসির নতুন নিয়ম

দেশের দূরশিক্ষা ও মুক্তশিক্ষার বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য উচ্চশিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলিকে আগামী শিক্ষাবর্ষে (২০১৮-১৯) তাদের কোর্স চালানোর জন্য নতুন করে অনুমোদন নিতে হবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের কাছে। অনুমোদন পেলে তবেই নতুন শিক্ষাবর্ষের দূরশিক্ষা ও মুক্তশিক্ষার কোর্সে (ওপেন অ্যান্ড ডিস্ট্যান্স লার্নিং— ওডিএল) তারা ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করতে পারবে। অনুমোদনের জন্য ইউজিসির কাছে তাদের অনলাইন আবেদন গ্রহণ চলছে, ২ এপ্রিল থেকে ১ মে ২০১৮ পর্যন্ত। প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য আবেদনের বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হয়েছে ওয়েবসাইটে (https:// www.ugc’ac’in/deb/)। যারা ২০১৮-র জুলাইয়ে শুরু হতে যাওয়া শিক্ষাবর্ষের জন্য ২০১৭-র জুলাই-অক্টোবর নাগাদ আবেদন করেছিল সেই প্রতিষ্ঠানগুলিকেও আবার আবেদন করতে হবে। মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলি আপাতত এই বিধিনিষেধের মধ্যে পড়ে না, কারণ তাদের ন্যাকের অ্যাক্রেডিটেশন পাবার যোগ্যতা তৈর হয়নি। তারা সেই যোগ্যতা অর্জন করলে তাদের ক্ষেত্রেও ১ বছরের মধ্যে ন্যাকের অ্যাক্রেডিটেশন বাধ্যতামূলক হবে।

নতুন নিয়ম চালু হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির বিষয়ে সমস্যায় পড়তে হতে পারে পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের বেশকিছু বিশ্ববিদ্যালয়। কারণ দূরশিক্ষা ব্যবস্থায় কোর্স চালাতে হলে প্রতিষ্ঠানটিকে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের নতুন মাপকাঠিতে উত্তীর্ণ হতে হবে। মাপকাঠির মধ্যে দুটি প্রধান শর্ত হল, প্রতিষ্ঠানটিকে ন্যাক (ন্যাশনাল অ্যাসেসমেন্ট অ্যান্ড অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল)-এর মূল্যায়নের ৪-পয়েন্ট অ্যাক্রেডিটেশন স্কেল অনুযায়ী অন্তত ৩.২৬ পেয়ে থাকতে হবে। এবং প্রতিষ্ঠানটিকে ইতিমধ্যে অন্তত ৫ বছর ধরে পঠন-পাঠন চালিয়ে আসতে হবে। তাছাড়া, এই বিশ্ববিদ্যালয় ও উচ্চশিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলিতে দূরশিক্ষা ও মুক্তশিক্ষা ব্যবস্থায় পড়ানো যাবে কেবল অ-কারিগরি কোর্স। পড়ানো যাবে না ইঞ্জিনিয়ারিং, মেডিসিন, ডেন্টাল, ফার্মাসি, নার্সিং, আর্কিটেকচার, ফিজিওথেরাপি বা এমন কোনো কোর্স যার নিয়ামক সংস্থা সেই কোর্সটিকে দূরশিক্ষায় পড়ানো যাবে না বলে বিধান দিয়েছে।

এতদিন অ-কারিগরি এই ধরনের কোর্স চালানোর জন্য ন্যাক-এর অ্যাক্রেডিটেশন লাগত ঠিকই, তবে ন্যূনতম মান চাওয়া হত না। ইউজিসি (ওপেন অ্যান্ড ডিস্ট্যান্স লার্নিং) সেকেন্ড অ্যামেন্ডমেন্ট ২০১৮ মোতাবেক ন্যূনতম ৩.২৬ মান নির্দিষ্ট করা হয়েছে আবশ্যিক ভাবে। এসব জানা যাবে ইউজিসির এই লিঙ্কে: https://4www.ugc.ac.in/uqcnotices.aspx

ফলে, গতবছর পর্যন্ত যেসব কোর্স অনুমোদিত হিসাবে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করতে পেরেছে, সেই কোর্সগুলির চালু শিক্ষাবর্ষ শেষ না হওয়া পর্যন্ত বৈধ থাকবে (২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত), কিন্তু নতুন শিক্ষাবর্ষে নতুন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা যাবে নতুন অনুমোদন পেলে।

দেশের বহু বিশ্ববিদ্যালয় ন্যাকের অ্যাক্রেডিটেশন পেলেও ৪-পয়েন্ট স্কেল অনুযায়ী ৩.২৬ তুলতে পারেনি। পশ্চিমবঙ্গের কিছু বিশ্ববিদ্যালয়েরও এই সমস্যা আছে। ফলে তাদের পক্ষেও দূরশিক্ষা ও মুক্তশিক্ষার (ওডিএল) কোর্সে আগামী শিক্ষাবর্ষের জন্য ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি আটকে যেতে পারে।

তাই কোনো ইউজিসি অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানেও ডিস্ট্যান্স ও ওপেন লার্নিং ব্যবস্থার কোর্সে ভর্তি হতে গেলে খোঁজ নেওয়া দরকার সেই কোর্সে নতুন শিক্ষাবর্ষে ভর্তির জন্য ইউজিসির অনুমোদন তারা পেয়েছে কিনা।

2 thoughts on “ডিস্ট্যান্স এডুকেশনে চালু হচ্ছে ইউজিসির নতুন নিয়ম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *